পেঁয়াজ সংকটে বাংলাদেশ। রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন বাজারে পেঁয়াজের দাম কেজি প্রতি পৌঁছে গেছে ২৪০-২৫০ টাকা। কিনতে গিয়ে চোখের জলে নাকের জলে আম জনতা। এই পরিস্থিতিতে পাকিস্তান থেকে পেঁয়াজ আমদানি করল হাসিনা সরকার।

গত অগস্ট মাসেও বাংলাদেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম ছিল কেজি প্রতি ৭০-৮০ টাকা। গত ২৯ সেপ্টেম্বর ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করার পর পণ্যটির দাম এক ধাক্কায় বেড়ে কেজি প্রতি ১৫০ টাকায় ঠেকে। এরপর দাম বাড়তেই থাকে। 

গত দেড়মাস ধরে বাংলাদেশের বাজারে কেবল বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। পরিস্থিতি সামল দিতে চিন, মিশর, তুরস্ক, মায়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানি করছে বাংলাদেশ। এবার পাকিস্তান থেকেও পেঁয়াজ আমদানি শুরু করলো শেখ হাসিনার সরকার। চারটি বিমানে করে আনা হচ্ছে পেঁয়াজ। কার্গো বিমানে করে ইতিমধ্যে এসে পৌঁচেছে ৮২ টন পেঁয়াজ। 

ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করার পর গত অক্টোবরে এদেশে আসেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দিল্লিতে পৌঁছে  পেঁয়াজ নিয়ে মোদী সরকারকে খোঁচা দিতে ভোলেননি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। রসিকতা করে বলেন রাঁধুনিকে অগ্নিমূল্য পেঁয়াজ ব্যবহার করতে না করে দিয়েছি।