বিদেশে এবার কাশ্মীর নিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে গিয়ে বিপাকে পড়লেন পাকিস্তানিরা। তাঁদের সঙ্গ দিতে গিয়ে আইনি ঝামেলায় জড়ালেন কয়েকজন বাংলাদেশিও। 

বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের প্রতিবাদে রবিবার বাহরিনে একটি মিছিল বের করেন কিছু পাকিস্তানি এবং বাংলাদেশি নাগরিক। ইদের প্রার্থনার পরেই ওই মিছিল বের করা হয়। বিষয়টি নজরে আসতেই মিছিলে অংশগ্রহণকারীদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করেছে বাহরিন প্রশাসন। যাঁরা মিছিলে অংশগ্রহণ করেন, তাঁদের গ্রেফতারও করা হয়। 

বাহরিনের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রকের পক্ষ থেকেই টুইট করে খবরের সত্যতা স্বীকার করে নেওয়া হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, 'ইদের প্রার্থনার পরে আইন ভেঙে জমায়েত করার জন্য কিছু এশিয়র বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করা হয়েছে। বাহরিনের নাগরিক এবং বাসিন্দাদের কাছে অনুরোধ, ধর্মীয় অনুষ্ঠানকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করবেন না।'

ঘটনাচক্রে গত শুক্রবারই বাহরিনের রাজে শেখ হামাদ বিন ইসা আল খালিফাকে ফোন করে কাশ্মীর পরিস্থিতির ব্যাখ্যা করেছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তার পরেও বাহরিনের এমন কঠোর পদক্ষেপ পাকিস্তানের পক্ষে খুব একটা আশাব্যঞ্জক নয়।