Asianet News Bangla

বাইরে নয় আপনার বাড়িই করোনার আঁতুড়ঘর, বলছে দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন একটি গবেষণা

বাড়ি থেকেই বেশি ছড়াতে পারে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ 
দক্ষিণ কোরিয়ার মহামারী বিশেষজ্ঞদের গবেষণা
১০০ জনের মধ্যে ২ জন বাইরে থেকে আক্রান্ত হয়
১০ জনের মধ্যে ১ জন সংক্রমিত হয় বাড়ি থেকে 

people more likely to contract coronavirus at home says study bsm
Author
Kolkata, First Published Jul 22, 2020, 5:47 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

বাড়ির বাইরের মানুষ নয়, পরিবারের সদস্যদের মাধ্যমেই করোনাভাইরাস সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে। তেমনই তথ্য হাতে পেয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ায় মহামারী বিশেষজ্ঞরা। 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রগুলিতে গত ১৬ জুলাই পেশ হওয়া সমীক্ষা অনুযায়ী করোনাভাইরাসের সংক্রমিত হয়েছেন ৫৭০৬ জন। আর তাদের সংস্পর্শে আসা মানুষের সংখ্যা ৫৯ হাজার জনেরও বেশি। 

 অনুসন্ধান করে দেখা গেছে ১০০ জন আক্রান্ত মানুষের মধ্যে মাত্র জন বাড়ির বাইরে থেকে সংক্রমিত হয়েছিলেন। সেখানে পরিবারের মধ্যে থাকা আত্মীয়দের মাধ্যমে সংক্রমিত হওয়ার সংখ্যা  প্রতি ১০ জনের মধ্যে এক জন। 

প্রথম দিকে পরিবারের মধ্যে সংক্রমণের হার বেশি ছিল শিশু, কিশোর আর ৬০-৭০ বছর বয়সী মানুষের মধ্যে। আর সেই কারণেই অনুমান করা হয়েছে এই বয়সী মানুষরা পরিবারের বাকি সদস্যদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রাখে। তাই শিশু ও বৃদ্ধদের ক্ষেত্রে বেশি সুরক্ষা প্রয়োজন হয় বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কোরিয়া কেন্দ্রের পরিচালক জিয়ং ইউন কায়ং বলেছেন পরিবারের সদস্যদের মাধ্যমেই সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে। 

এই গবেষণার নেতৃত্বাধীন হালিম ইউনিভার্সিটি অব মেডিসিনের সহকারী অধ্যাপক ডাক্তার চো ইয়ং জুন বলেছেন ৯ বছর বা তার কম বয়সীদের মধ্যে রোগী হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটাই কম ছিল। পাশাপাশি তিনি ২০-২৯ বছর বয়সী ১৬৯৫ জনের মধ্যে সমীক্ষা চালিয়ে দেখেছেন ২৯ বছর বয়সীদের আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা খুব কম। 

প্রথা মেনে রাম মন্দিরের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী, আমন্ত্রিত থাকবেন সব মুখ্যমন্ত্রীরা

করোনাভাইরাসে সংক্রমিত প্রাপ্ত বয়স্কোদের তুলনায় শিশুরা অনেকটা বেশি উপসর্গহীন বলেও দাবী করা হয়েছে নতুন গবেষণায়। গবেষকদের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে বয়সের পার্থক্য অনুযায়ী আক্রান্তের সংখ্যারও হেরফের হয়। শিশুদের সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা তুলনায় অনেকটাই কম থাকে। তবে এব্যাপারে নিশ্চিত হতে আরও বেশি গবেষণার প্রয়োজন বলেও  জানান হয়েছে।

রাজস্থানের রাজনৈতিক সংকট এবার সুপ্রিম কোর্টে, 'সাংবিধানিক' সংকট' বলেই দাবি স্পিকারের ...  

গত ২০ জানুয়ারি থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত গবেষণার জন্য তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছিল। ওই সময়ই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে দক্ষিণ কোরিয়ার বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে। 

করোনা সংক্রমণ থেকে বাঁচতে কী জাতীয় মাস্ক ব্যবহার করবেন, পরামর্শ দিলেন চিকিৎসকরা ...

সোমবার এই দেশে নতুন করে আরও ৪৫ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বলে জানান গেছে। এখনও পর্যন্ত উত্তর কোরিয়ায় আক্রান্তের সর্বমোট সংখ্যা ১৩,৮১৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৯৬ জনের। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios