গভীর রাতে বড়সড় রেল দুর্ঘটনা ঘটল বাংলাদেশে। ঢাকাগামী একটি এক্সপ্রেস ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে মৃত্যু হল অন্তত সাত জনের, আহত প্রায় আড়াইশো। লাইনচ্যুত হওয়া পাঁচটি বগির মধ্যে একটি বগি খালের মধ্য গিয়ে পড়ে। 

রবিবার স্থানীয় সময় রাত বারোটা নাগাদ সিলেট থেকে ঢাকাগামী উপবন এক্সপ্রেস দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। জানা গিয়েছে, বরমচাল নামে একটি স্টেশন পার করার পরেই লাইনচ্যুত হয় ট্রেনটি। একটি খালের উপরে ছোট কালভার্ট পেরনোর সময় দুর্ঘটনা ঘটে। লাইনচ্যুত হওয়া বগিগুলির সবকটিই উল্টে যায়। একটি বগি গিয়ে পড়ে খালের মধ্যে।

গভীর রাতে অন্ধকারের মধ্যে উদ্ধারকাজ শুরু করতেও বেগ পায় পুলিশ এবং দমকল বাহিনী। সকাল পর্যন্ত লাইনচ্যুত বগিগুলির মধ্যে থেকে সাত যাত্রীর মৃতদেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়। তাঁদের মধ্যেও বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে খবর। সরকারি তরফে অবশ্য হতাহতের সংখ্যা নিয়ে কিছু জানানো হয়নি। 

এই দুর্ঘটনার ফলে ওই লাইনে ট্রেন চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে গিয়েছে। ফলে গোটা দেশের সঙ্গে সিলেটের রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন। অন্যদিকে ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ায় একটি সেতু ভেঙে পড়ায় সিলেটের সঙ্গে গোটা দেশের সড়ক পথে যোগাযোগও প্রায় বিচ্ছিন্ন রয়েছে পাঁচ দিন ধরে। ফলে দ্রুত উদ্ধারকাজ শেষ করে এবং লাইন মেরামতির পরে রেল চলাচল শুরু করার চেষ্টা করছে সরকার এবং স্থানীয় প্রশাসন।