অ্যাপ নির্ভর ক্যাব পরিবেষা উবারের লাইসেন্স বাতিল হল লন্ডনে। সিন্ধান্ত নিল ট্রান্সপোর্ট ফর লন্ডন। ফলে উবারে নিবন্ধিত প্রায় ৪৫ হাজার গাড়ি চালকের কাজ হারানোর আশঙ্কা তৈরি হল। 

নিরাপত্তার কারণে ২ বছর আগেই উবারের লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছিল। পরে সংস্থাটির আবেদনের ভিত্তিতে ১৫ মাস সময় বাড়ান হয়েছিল। এই সময়ের মধ্যে নিয়মের বেশকিছু পরিবর্তনও করে সংস্থাটি। পরে আরও দু'মাস সময় দেওয়া হয় উবারকে। যা গত রবিবার শেষ হয়েছে। কিন্তু সময় দেওয়ার পরেও পিরচালন নীতি যথেষ্ট যোগ্য নয় বলেই মনে করছে টিএফএল, সেই কারণেই লাইসেন্স বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

ভুয়ো পরিচয়পত্র দেখিয়ে উবারে ৪০ জন চালক কাজ করেছে এবং ১৪,০০০ বেশি ট্রিপ হয়েছে। নিয়ম ভাঙার পরেই ফের  নড়েচড়ে বসে  ট্রান্সপোর্ট ফর লন্ডন। 
 লাইসেন্সিং, রেগুলেশন অ্যান্ড চার্জিং  বিভাগের পরিচালক হেলেন চ্যাপম্যান জানিয়েছেন, তাঁদের কাছে নিরাপত্তার বিষয়টি সবার আগে। সেখানে উবার যথেষ্ট উন্নতি করেছে। কিন্তু তারা লাইসেন্স ও বিমাহীন চালকদের গাড়িতে যাত্রীদের উঠতে দিচ্ছে, এই বিষয়টি গ্রহণযোগ্য নয়। 

গত কয়েক বছর ধরেই বিভিন্ন দেশে অ্যাপ নির্ভর ক্যাব পরিষেবা দিতে গিয়ে সমালোচনার মুখে পড়ছে মার্কিন সংস্থা উবার। বিশেষ অ্যাপ ব্যবহার করে উবার চালকরা তাদের গতিবিধি গোপন করছেন বলে অভিযোগ উঠছে। তবে সমালোচনা সত্ত্বেও ক্রমেই বাড়ছে উবারের গ্রাহকের সংখ্যা। বর্তমানে লন্ডনে উবারের নিবন্ধিত চালকের সংখ্যা ৪৫ হাজার। প্রতিষ্ঠানটির লাইসেন্স বাতিলের সিদ্ধান্ত পরিবর্তিত না হলে তাদের সবার কাজ হারানোর আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।