মোবাইল ফোন নিয়ে তরুণ প্রজন্মের মধ্যে উত্তেজনার শেষ  নেই।  তার সঙ্গে তাল দিচ্ছেন সমাজের প্রবীন প্রজন্মরা। নকুন নতুন মডেলের ফোন আসছে বাজারে। তার সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন ফিচার।  আর আধুনিক প্রযুক্তির ফোন নেওয়ার জন্য খুব সহজেই মোবাইল ফোন বদল করে ফেলছেন বিশ্ববাসী। অনেক সময় তো দামের দিকে কেউ তাকাচ্ছেন পর্যন্ত না। এই পরিস্থিতি উলটো পথে হাঁটছেন বিলিনিয়ার ওয়ারেন বাফেট। তাঁর হাতে স্যামসংয়র অত্যন্ত কম দামী ফোন। যার মূল্য  ২০ থেকে ৩০ মার্কিন ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় ১৪০০ থেকে ২১০০ টাকা। অ্যাপেলের অন্যতম শেয়ার হোল্ডার হওয়ার পরেও তিনি ব্যবহার করেন না কোনও আইফোন। 


বৃহস্পতিবার মার্কিন সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি নিজের ফোনটা ক্যামেরার সামনে তুলে ধরেন। কৌতুক করে তিনি জানান, 'এটা আমার ফোন। আলেকজান্দ্রার গ্রাহম বেল আমাকে এই ফোনটা ধার দিয়েছিলেন ব্যবহার করার জন্য। কিন্তু তাঁকে আর ফেরত দেওয়া হয়নি।' তবে এতউন্নত প্রযুক্তির ফোন বাজারে আসার পরেও তিনি এখনও কেন  এই ধরনের ফোন ব্যবহার করছেন, সেই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেননি।  সোজা সেই প্রসঙ্গ এড়িয়ে গিয়ে জানান, কোনও কোনও সময় তিনি ফিচারগুলো গবেষণার জন্য বা প্রযুক্তির সঙ্গে দামের সামঞ্জস্য আছে কি না সেটা দেখার জন্য আই প্যাড ব্যবহার করে থাকেন।  


সাক্ষাৎকারে বাফেট জানান, অ্যাপেলের নতুন ফোনে একটা দুটো ভুল হলে, সেই  ক্ষতিপূরণ করার ক্ষমতা হয়তো আছে অ্যাপেলের। কিন্তু এর থেকে বেশি মোবাইলের ত্রুটি থাকলে,  বড় বিপাকে অ্যাপেল পড়বে।  তিনি বলেন অ্যাপেলের শেয়ারের প্রতি তাঁর আগ্রহ স্বল্প মেয়াদেরল বিনিয়োগের জন্য নয়, অ্যাপেলের শেয়ার প্রতি তাঁর বড় সংস্থার জন্য। তিনি মন্তব্য করেছেন, অ্যাপেলের আইফোন এক্স মডেলের একটি ফোন তাঁর কাছে আছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত ওই প্রযুক্তি তিনি ধাতস্থ করে উঠতে পারেননি।