মহামারীর আকার ধারন করেছে করোনা ভাইরাস। চিনে ছড়িয়ে পড়া এই অসুখের কারণে প্রাঁ হারিয়েছেন ইতিমধ্যে ২১৩ জন, যার মধ্যে ২০৪ জন কেবলমাত্র হুবেই প্রদেশের। বৃহস্পতিবার পাওয়া খবর অনুযায়ী এখনও পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৬০০০ জন। মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়া এই ভাইরাসকে রুখতে হুবে শহরের সঙ্গে সমস্ত যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে চিনের পক্ষ থেকে। 

আরও পড়ুনঃ করোনাভাইরাস রোধে মোদী সরকারের দাওয়াই, খোরাক হয়ে উঠল সোশ্যাল মিডিয়ায়

 

 

বিশেষ টিমের দ্বারা চলছে চিকিৎসা। চিনের বাইরে মোট একশোটি এই রোগের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তবে চিন ছাড়া এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখনও পর্যন্ত কেউ মারা যায়নি। চিন থেকে আসা কোনও পর্যটক বা যাত্রী মারফত এই ভাইরাস ছড়াচ্ছে অনত্র। ইতিমধ্যেই ইতালিতে ধরা পড়েছে এই ভাইরাস। দুই চিনা পর্যটকদের শরীর থেকে পাওয়া গিয়েছে করোনাভাইরাস।

 

 

বিপদের ঝুঁকি এড়াতে ইতালি ও চিনের সঙ্গে সকল যোগাযোগ বন্ধ করা হয়েছে। পরিস্থিতি জটিল হয়ে ওঠায় এবার নরেচরে বসল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। চিনের করোনা ভাইরাসকে গ্লোবাল হেলথ এমার্জেন্সি বলে ঘোষণা করল হু। চিন থেকে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের। যদিও চিনের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করার পক্ষপাতি নয় হু, তবুও ইতালি সহ ফ্রান্স আমেরিকান ও ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ বন্ধ রেখেছে চিনের সঙ্গে বিমান পরিষেবা। শুক্রবার থেকেই ভারতে নাগরিকদের ফেরানোর কাজ শুরু করে দিল্লি।