বিশাখাপত্তনমে বুধবার আইপিএল ২০১৯-এর প্রথম এলিমিনেটর ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে দিল্লি ক্যাপিটালস ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। এই বছর নাম, জার্সি, সাপোর্ট স্টাফ - দলে অনেক বদল এনে নতুন করে শুরু করতে চেয়েছিল দিল্লি ক্যাপিটালস। এখনও প্যন্ত তারা সেই লক্ষ্যে সফল। টানা জিতে এখন দারুণ অবস্থায় আছে রাজধানীর দলটি। অন্য দিকে গতবারের রানার-আপ এসআরএইএইবার দারুণ শুরু করেও, শেষ দিকে তাদের সেই ফর্ম ধরে রাখতে পারেনি। অপর দলের ফলাফলের উপর নির্ভর করতে হয়েছে প্লেঅফে জায়গা করে নেওয়ার জন্য।

দিল্লি কিন্তু দেখিয়ে দিয়েছে এই দলের আইপিএল ট্রফি জেতার ক্ষমতা রয়েছে। তাদের মূল শক্তি ব্যাটিং। শিখর ধাওয়ান, পৃথ্বী শ, ঋষভ পন্থরা বেশ কিছু ভালো ইনিংস খেলেছেন। তবে এদিন তাদের ভোগাতে পারে কাগিসো রাবাডার অনুপস্থিতি। এতদিন দিল্লির বোলিংকে নেতৃত্ব দিয়েছেন আপাতত পার্পল ক্যাপ-এর অধিকারী রাবাডাই। কিন্তু জিততেই হবে এমন পরিস্থিতিতেই তাঁকে পাচ্ছে না ক্যাপিটালস। বিশাখাপত্তনমের পিচ ন সহায়ক হয়। কাজেই অনেক কিছু নির্ভর করছে বর্ষীন অমিত মিশ্রের উপর। সেই সঙ্গে কিমো পলের বদলে প্রথম দলে আসতে পারেন নেপালের রহস্য স্পিনার সন্দীপ লামিছানেও।

অপর দিকে শুরুর দিকের ম্য়াচগুলিতে ডেভিড ওয়ার্নার ও জনি বেয়ারস্টো-ই সানরাইজার্সের অর্ধেক কাজ সেড়ে দিতেন। কিন্তু, তাঁরা ফিরে যেতেই অনেকটা শক্তি কমে গিয়েছে সানরাইজার্সের। দলের ব্যাটিং কিছুতেই থিতু হতে পারছেন না। বিজয় শঙ্করের ব্য়াটে ঝলক দেখা গিয়েছে। নিজের ফর্ম ফিরে পেয়েছেন মনীশ পাণ্ডেও। কিন্তু তারপরেও আইপিএল ২০১৯-এর শুরুর দিকের ফর্ম খুঁজে পাচ্ছে না হায়দরাবাদ। ইউসুফ পাঠান ম্যাচের পর ম্যাচ ব্যর্থ। এই অবস্থায় তাঁর বদলে প্রথম একাদশে দেখা যেতে পারে দীপক হুডা-কে।

বোলিং নিয়েও চিন্তা রয়েছে। বিশেষ করে টি২০-তে প্রায় ব্যাটসম্যানদের ত্রাস হয়ে ওঠা আফগান স্পিনার রশিদ খান এইবার সেভাবে তাঁর নামের সুবিচার করতে পারছেন না। আরসিবি ম্যাচে ক্যারিবিয়ান ব্য়াটসম্য়ান শিমরন হেটমায়ার তো বেধারক মেরেছেন তাঁর বলে। সন্দীপ শর্মার প্রথম একাদশে ফিরে আসার সম্বাবনা রয়েছে। তাঁকে জায়গা করে গিতে বাইরে যেতে হতে পারে বাসিল থাম্পি-কে।

মুখোমুখি দ্বৈরথের ইতিহাসে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে সানরাইজার্স। ১৪টি ম্যাচের ৯টিতেই জয় পেয়েছে কমলা ব্রিগেড। তবে বিশাখাপত্তনমে দুই দলের মধ্য়ে হওয়া একমাত্র ম্যাচে জয় পেয়েছিল দিল্লি। এই মাঠে প্রথম ইনিংসে গড়ে ১৫৬ রান উঠেছে। র দ্বিতীয় ইনিংসে ১৪৮। তবে সর্বোচ্চ রানের ইনিংসের রের্ড রয়েছে সিএসকের হাতে। সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে তারা করেছিল ২২৩/৩।

দেখে নেওয়া যাক দুই দলের সম্ভাব্য প্রথম একাদশ -

দিল্লি ক্যাপিটাল্স

পৃথ্বী শ, শিখর ধাওয়ান, শ্রেয়স আইয়ার (অধিনায়ক), ঋষভ পন্থ (উইকেটরক্ষক), কলিন ইনগ্রাম, শেরফানে রাদারফোর্ড, অক্ষর প্যাটেল, কিমো পল/ সন্দীপ লামিছানে, ট্রেন্ট বোল্ট, অমিত মিশ্র, ইশান্ত শর্মা

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ

মার্টিন গাপ্টিল, ঋদ্ধিমান সাহা (উইকেটরক্ষক), মনীশ পান্ডে, কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), বিজয় শঙ্কর, ইউসুফ পাঠান/ দীপক হুডা, মহম্মদ নবি, রশিদ খান, ভুবনেশ্বর কুমার, খলিল আহমেদ, সন্দীপ শর্মা