শুক্রবার আইপিএলের গুরুত্বপূর্ণ ম্য়াচে মুখোমুখি দিল্লি ক্যাপিটালস ও রাজস্থান রয়্যালস। শারজায় হতে চেলছে এই ম্য়াচ। প্রতিযোগিতায় ৫ ম্যাচে ৪ ম্যাচ জিতে দুরন্ত ফর্মে রয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। লিগ টেবিলে রান রেটের বিচারে দ্বিতীয় স্থানে থাকলেও, প্রথম স্থানে থাকা মুম্বইয়ের থেকে এক ম্যাচ কম খেলেছে শ্রেয়স আইয়রের দল। এবার রাজস্থান রয়্যালসকে হারিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে যাওয়ার বিষয়েও আত্মবিশ্বাসী কোচ রিকি পন্টিংয়ের দল। দিল্লির ব্যাটিং লাইনআপে শিখর ধওয়ান, পৃথ্বী শ, শ্রেয়স আইয়র থেকে শুরু করে ঋষভ পন্থ, মার্কাস স্টয়নিস, শেমরন হেটমায়ার সকলেই রানের মধ্যে রয়েছেন। বোলিং লাইনআপেও দুরন্ত ছন্দে রয়েছে রাবাডা, নর্ৎজে, অশ্বিন, অ্যাক্সর প্যাটেলরা। প্রথম আইপিএল ট্রফি জয়ের লক্ষ্যে নিজেদের বিজয় রথ চালিয়ে যেতে চাইছে দিল্লি ক্যাপিটালস দল।

অপরদিকে শারজয়া নিজেদের প্রথম দুটি ম্যাচ জিতলেও, পরপর তিনটি ম্যাচ হেরে যথেষ্ট চাপে রয়েছে অধিনায়ক স্টিভ স্মিথের দল। একটা প্লাস পয়েন্ট দিল্লির বিরুদ্ধে এই ম্যাচ হতে চলেছে শারজার ছোট মাঠে। এই মাঠে প্রথম দুই ম্যাচে দুরন্ত ছন্দে দুটি ম্যাচ জিতেছি রাজস্থান। তবে দলের ধারাবাহিকতার অভাব নিয়ে চিন্তিত রয়েছে রাজস্থান রয়্যালস টিম ম্যানেজমেন্ট। প্রথম দুই ম্য়াচে স্টিভ স্মিথ ও সঞ্জু স্যামসন। কিন্তু শেষ কয়েকটি ম্যাচে রান পাননি তারাও। তবে আশার আলো শেষ ম্য়াচে রানে ফিরেছেন জস বাটলার। অপরদিকে জোফ্রা আর্চার ছাড়া ছন্দে নেই রাজস্থানে অন্য়ান্য বোলাররাও। অঙ্কিত রাজপুত, শ্রেয়স গোপাল, কার্তিক ত্যাগি, টম কুরানরা এখনও নিজেদের সেরাট উজার করে দিতে পারেননি। কিন্তু পরিস্থিতি যাই থাক দিল্লিকে হারিয়ে জয়ে ফিরতে মরিয়া স্টিভ স্মিথের দল।

পিচ ও ওয়েদার রিপোর্ট-
শারজার পিচ আরও একবার বোলারদের কবরস্থান হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। পাটা ব্যাটিং পিচ ও তারউপর ছোট মাঠ, দুই কারণে শুক্রবার শারজায় হাই স্কোরিং ম্য়াচ হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। ইতিমধ্যে শুধু শারজায় শেষ তিনটি ম্যাচে ১০০-র উপর ছক্কা হাঁকিয়েছেন ব্য়াটসম্যানরা। ব্যাটিং প্রথম হোক বা দ্বিতীয় খুব একটা পিচ পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই। শুধু দ্বিতীয় ব্যাটিংয়ে ডিউ একটা ফ্যাক্টর হতে পারে। শারজার তাপমাত্রা থাকবে ৩৩ ডিগ্রির আশেপাশে। বজায় থাকবে আদ্রতা জনিত অস্বস্তি।

ম্যাচ প্রেডিকশন-
দুই দলেই একাধিক স্টার প্লেয়ার থাকলেও, অপ্রতিরোধ্য ফর্মে রয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস দল। ব্য়াটিং লাইনআপের গভীরতা ও বোলিং শক্তিও রাজস্থানের থকে অনেক ভাল। টানা ম্য়াচ জিতে আত্মবিশ্বাসও ভরপুর রয়েছে দিল্লি দলের। তাই ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের মতে এই ম্যাচ জিততে চলেছে শ্রেয়স আইয়রের দিল্লি ক্যাপিটালস।