বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম সেরা ফাস্ট বোলার প্যাট কামিন্স। টেস্ট ক্রিকেটে আইসিসি ব়্যাঙ্কিংও তার এক। ২০২০ সালের আইপিএলে আইপিএলের সবথেকে দামি প্লেয়ার ছিলেন তিনি। কিন্তু কেকেআরের বিরুদ্ধে বিশ্ব সেরা ফাস্ট বোলারকে যেভাবে ফ্লিক মেরে স্টেডিয়ামের দোতলার ছাদে বল তুলে দিয়েছে তাতে হতবাক হয়েছে ক্রিকেট বিশ্ব। ফ্লিক মেরে যেএত বিশাল ছক্কা মারা যায় তা দেখে মাঠে হার্দিক পান্ডিয়ার প্রতিক্রিয়া ছিল চোখে পড়ার মত।  ক্রিকেট বিশ্বে এই শটের নামকরণ হয়েছে 'নটরাজ' ফ্লিক।

প্যাট কামিন্সকে ফ্লিক মেরে যে বিশাল ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন সূর্যকুমার যাদব তার দূরত্ব ছিল ৯৯ মিটার। কোথা থেকে এমন অদ্ভূত শট খেলেছেন অবশেষে তা জানালেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স তারকা। সূর্যকুমার বলেন,ছোটবেলায় আমি চামড়ার বল দিয়ে অনেক ক্রিকেট খেলেছি। ওখানে একপাশের বাউন্ডারি হত প্রায় ৯০-৯৫ মিটার। আমার এই শট খেলা আমি ওখানেই প্রথম শুরু করি। ওখান থেকেই শেখা এই শট। তাছাড়া নেটে আমি প্রতিদিন ওই শট খেলার অনুশীলন করি। বর্তমানে আমি নিজের খেলা খুবই উপভোগ করছি। আশা করি নিজের ফর্ম ধরে রেখে দলের জন্য আরও ভালো করব।’

 

 

গতবার আইপিএল থেকেই স্বপ্নের ফর্মে রয়েছে সূর্যকুমার যাদব। ২০২০ সালে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের টানা দ্বিতীয়বার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পেছনে অন্যতম অবদান ছিল সূর্যর। যার সুবাদেই সদ্য সমাপ্ত ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজে অভিষেকে অনবদ্য পারফরমেন্স করেছেন মুম্বই তারকা। তিনি যে ছন্দে রয়েছে তার ঝলক আইপিএলের প্রথম দুই ম্য়াচেও দেখা গিয়েছে। ১৫৫-র উপর স্ট্রাইক রেটে ব্যাট করছেন তিনি।  এই ফর্ম ধরে রাখার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী  সূর্যকুমার যাদব।