উত্তমা সরকার, জলপাইগুড়ি: মর্মান্তিক! পাহাড় থেকে পা পিছলে নিচে পড়ে এবার প্রাণ গেল একটি পূর্ণবয়ষ্ক হাতির। ঘটনায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে ডুয়ার্স লাগোয়া জলপাইগুড়ির সুরেন্দ্রনগর চা বাগান এলাকায়। তদন্তে নেমেছে বনদপ্তর। 

আরও পড়ুন: রাজ্য পুলিশে চাকরি দেওয়ার নামে 'প্রতারণা', গ্রেফতার মূল অভিযুক্ত-সহ ৪

একদিকে এ রাজ্যের জলপাইগুড়ি জেলা আর অন্যদিকে ভূটান, মাঝখান গিয়ে বয়ে গিয়েছে ডায়না নদী। নদীর একেবারে গা-ঘেঁয়ে দাঁড়িয়ে আছে ভুটানের টাইটানিক পাহাড়। পাহাড়টির উচ্চতা খুব বেশি নয়। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, বুধবার সকালে পাহাড়ে চুড়োয় উঠে পড়ে বেশ কয়েকটি হাতি। খেলতে খেলতে আচমকাই পা পিছলে যায় একটি হাতির। পাহাড় থেকে হাতিটি সোজা নিচে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই মারা যায় সে। ঘটনাটি জানাজানি হতে রীতিমতো শোরগোল পড়ে যায় এলাকায়। হাতিটিকে দেখতে ডায়না নদীর পাড়ে জলপাইগুড়ির সুরেন্দ্র নগর চা বাগান লাগোয়া এলাকায় ভিড় করেন বহু মানুষ।  খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন ভূটান ও জলপাইগুড়ির ডায়না রেঞ্জের বনকর্মীরা। হাতির দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। কীভাবে দুর্ঘটনা ঘটল? তা খতিয়ে দেখছে বনদপ্তর। 

আরও পড়ুন: করোনা নেগেটিভ আসতেই অসুস্থতা নিয়ে বাড়ি, দ্বিতীয়বার পজিটিভের পর মৃত্যু সাব ইন্সপেক্টরের

উল্লেখ্য, দিন কয়েক আগে ডুয়ার্সের মাদারিহাটে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মারা গিয়েছিল একটি হস্তিশাবকের। ভোর রাতে খাবারের সন্ধানে হাতির দল ঢুকে পড়েছিল স্থানীয় এক ব্যক্তি সুপারি বাগানে। বাগানে যখন তাণ্ডব চালাচ্ছিল হাতির দল, তখনই ঘটে বিপত্তি। একটি সুপারি গাছ বিদ্যুতের তারের উপর ছিঁড়ে পড়ে। সঙ্গে সঙ্গে তারটি ছিঁড়ে যায়। সেই দেহে জড়িয়ে যেতেই বিদ্যুৎপৃষ্ট হয় হস্তিশাবক এবং ঘটনাস্থলে মারা যায় সে। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ফের দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল আরও একটি হাতির।