কলকাতার বুকে ফের ঘটে গেল খুনের ঘটনা। ট্যাংরা এলাকার  রহস্যজনকভাবে খুন হয়েছেন চিনা বংশোদ্ভুত দু'জন ব্যক্তি। জানা গিয়েছে মৃত দুই ব্যক্তি একই বাড়ির সদস্য, একজন বাড়ির বউ এবং তাঁর শ্বশুর। শুক্রবার রাত ন'টা নাগাদ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছোয় পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে, একটি লোহাত বালতি। প্রসঙ্গত, মৃতদের মুখ থেঁতলানো অবস্থায় পাওয়া গিয়েছে। এর থেকেই পুলিশের প্রাথমিকভাবে অনুমান, লোহার  ওই বালতি দিয়েই মুখ থেঁতলে খুন করা হয়েছে তাঁদের।

মৃতদের মধ্যে ওই গৃহবধুর নাম লি-হাউ-মেইহা এবং তাঁর শ্বশুরের নাম লি-কা-সাং। পুলিশ গিয়ে তাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে, চিকিৎসকরা  তাঁদের মৃত বলে ঘোষণা করেন। উদ্ধার হওয়া সিসিটিভি ফুটেজ থেকে দেখা গিয়েছে, নিহত মহিলার স্বামী লি-ওয়ান-সাং সন্ধে সাতটা নাগাদ বেরিয়ে গিয়ে, পরে সাড়ে আটটা ফিরে এসে দেখেন তাঁর বাড়ির দরজা ভেতর থেকে বন্ধ। এরপর প্রাচীরের ওপর উঠে বাড়ির উঠোনে নিজের স্ত্রী ও বাবাকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেন। জানা গিয়েছে ওই দম্পতির তিন সন্তানও রয়েছে। 

প্রাথমিক তদন্তের ভিত্তিতে পুলিশের অনুমান, তাঁদের বাড়িটি খুব ভাল জায়গায় অবস্থিত হওয়ার জন্য এর নেপথ্যে কোনও প্রোমোটার চক্রের হাত থাকতে পারে, আবার পারিবারিস অশান্তির জেরেও খুন হয়ে থাকতে পারে বলে মত পুলিশের।