এনআরএস কাণ্ডে এখনও উত্তাল বাংলা। কেমন আছে পরিবাহ খোঁজ নিলেন সকলেই। এবার সেই ঘটনাকে পুরায় উষ্কে দিয়ে অশান্তির ছায়া মেডিক্যালে। শুক্রবার বিকেলে মেডিক্যাক কলেজের জুনিয়র ডাক্তার অভিষেক কুমার শাহ-র ওপর চলল হামলা। ঘটনায়ে গুরুতর আহত হন জুনিয়র ডাক্তার অভিষেক কুমার শাহ। পরিবাহ স্মৃতিকেই ফেরালেন অভিষেক। পুনরায় মাথায় আঘাত পেলেন ডাক্তার। মাথায় ব্যান্ডেজ বাঁধা অবস্থাতেই নিজের সিদ্ধান্তে অনড় থাকলেন তিনি।

এই ঘটনাকে ঘিরে আবারও তোলপাড় জুনিয়র ডাক্তার মহল। প্রতিবাদে ফেটে পরল মেডিকেল। এখনও মলিন হয়েনি পরিবাহ কাণ্ড, প্রতিবাদী মিছিলে শুক্রবারও রাস্তায় নামলেন জুনিয়র ডাক্তাররা। সঙ্গে পা মেলালেন শিল্পীরাও। এক দিকে যখন প্রতিবাদের আগুনে জ্বলছে  বাংলা, তখনই আরও খবরের শিরোনামে উঠে এলো এই মর্মান্তিক ঘটনা। মিলছে না সমাধারণ সূত্র। একের পর এক জুনিয়ার ডাক্তার নিগ্রহের কাণ্ড উঠে আসছে কেন, কী ভাবে ঘটল এই ঘটনা, কাদের মধ্যে বিবাদ, সেই নিয়ে এখনও রয়েছে ধোঁয়াশা। কিন্তু এই ঘটনা যে আবারও উত্তেজনার পারদকে চরাতে সাহায্য করছে, সেই নিয়ে কোনও দ্বিমত নেই। 

ডাক্তারদের একশ্রেণির বক্তব্য কবে মিলবে নিরাপত্তা, কেন এই অশান্তি, মুখ্যমন্ত্রী কেন আশ্বাস দিয়ে পাশে দাঁড়াতে পারছেন না, সেই নিয়ে ক্রমশ জল ঘোলা হচ্ছে ডাক্তারি মহলে। তবে এখন অভিষেকের অবস্থা স্বাভাবিক, চলছে প্রাথমিক চিকিৎসা পর্ব।