রাজ্য বিজেপি দফতরে স্মরণ করা হল প্রয়াত অরুণ জেটলিকে। এ দিন সকাল থেকে কলকাতায় বিজেপি দফতরে অরুণ জেটলির ছবিতে মালা দিয়ে শ্রদ্ধা জানান রাজ্য় বিজেপি নেতারা। শনিবার রাতেই কর্মসূচির মাঝে প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীকে শ্রদ্ধা জানান বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। 

২০০৪ সালে পশ্চিমবঙ্গে লোকসভা নির্বাচনে দলের তরফে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল অরুণ জেটলিকে। সেকথা মনে করিয়ে মেঘালয়ের রাজ্যপাল তথাগত রায় অরুণ জেটলির মৃত্যুর পরেই টুইট করেন। তথাগতবাবু লেখেন, বিজেপি-র পক্ষে বাংলায় আশাব্যঞ্জক কিছু হওয়ার সম্ভাবনা না থাকলেও কীভাবে সেই সময় লড়াই করার শক্তি জুগিয়েছিলেন প্রয়াত এই নেতা। সেই সময়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি ছিলেন তথাগতবাবু। 

ঘটনাচক্র যখন বিজেপি লোকসভা নির্বাচনে বাংলা থেকে দুর্দান্ত ফল করে এ রাজ্যে ক্ষমতা দখলের স্বপ্ন দেখছে, সেই সময়ই চলে গেলেন অরুণ জেটলি। 

অন্যদিকে বিজেপি দিল্লিতে বিজেপি সদর দফতরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে অরুণ জেটলির কফিনবন্দি দেহ। সকাল পৌনে এগারোটা নাগাদ তেরঙ্গায় মোড়া কফিনে করে অরুণ জেটলির দেহ রবিজেপি দফতরে নিয়ে আসা হয়। অমিত শাহ, জে পি নাড্ডা-সহ বিজেপি শীর্ষ নেতারা অরুণ জেটলিকে শেষ শ্রদ্ধা জানান। অরুণ জেটলিকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে পৌঁছে যান বাবা রামদেবও। বিজেপি সদর দফতরের বাইরেও প্রচুর সংখ্যক মানুষ শ্রদ্ধা জানান অরুণ জেটলিকে। বেলা দুটো নাগাদ নিগমবোধ শ্মশানে জেটলির শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।