গান্ধীজির সার্ধশতবর্ষ উপলক্ষে রাজ্যব্যাপী গান্ধী সংকল্প যাত্রা করবে রাজ্য বিজেপি। ২ অক্টোবর গান্ধীজির সার্ধশতবর্ষ ও ৩০ অক্টোবর সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের জন্মদিন উপলক্ষে এই সময়ে গান্ধী সংকল্প যাত্রার কথা ভেবেছিল বিজেপি। কিন্তু রাজ্যে পুজোর মাস থাকায় তা পিছিয়ে দেওয়া হয়। এদিন বিজেপির রাজ্য সদর দফতরে রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান, পুজোর মাস থাকায় আমরা সংকল্পের যাত্রা চলতি মাসের ১৫ তারিখ থেকে ২৬ তারিখ পর্যন্ত করবে। প্রতিদিন ১৫ কিলোমিটার পদযাত্রা হবে। একটি লোকসভায় সবমিলিয়ে দেড়শো কিলোমিটার পদযাত্রা হবে।  সব মিলিয়ে রাজ্যের সাড়ে ৬ হাজার কিলোমিটার রাস্তায় পদযাত্রা করবে বিজেপি। এই পদযাত্রার মাধ্যমে সর্বাধিক পরিমাণ গ্রাম ও মন্ডলকে প্রচারের আওতায় নিয়ে আসা হবে। সর্বাধিক পরিমাণ মানুষের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হবে। 

বিজেপির  রাজ্য সভাপতি জানান, ১৫ কিলোমিটার মূল যাত্রা সকাল থেকে সন্ধ্যে পর্যন্ত হবে।  দুপুরবেলা শ্রমিক ভোজন ও বিশ্রাম হবে। সন্ধ্যেবেলা সব জায়গাতেই বড় সভা হবে। লোকসভায় বিজেপির জয়ী প্রার্থীরা নিজেদের সংসদীয় এলাকায় এই পদযাত্রা করবেন। যেখানে লোকসভার সাংসদ নেই সেখানে স্থানীয় বিধায়ক,পঞ্চায়েত জেলা পরিষদ পঞ্চায়েত সমিতি সহ অন্যান্য নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা থাকবে। 

এদিন সাংবাদিকদের দিলীপ ঘোষ বলেন, গান্ধীজির স্বচ্ছ ভারতের ইচ্ছা পূরণ করছি আমরা। গতকাল আমরা দেখেছি আমাদের প্রধানমন্ত্রী স্বচ্ছ ভারতের লক্ষ্যে নিজে কীভাবে নিজেই ব্যাগে করে সমুদ্র সৈকত পরিষ্কার করেছেন।  আমাদের এই সংকল্প যাত্রা একটা সামাজিক অভিযান। যা সামাজিক আন্দোলনের মতো হবে। যেখানে রাজনীতি কম সামাজিক কাজ বেশি। জাতীয় পতাকা, জাতীয় আবেদন নিয়ে আমরা সমাজের সামনে যাব। আমাদের ১৮ তারিখ রাজ্যসভার দুজন সংসদ সদস্য স্বপন দাশগুপ্ত ও রূপা গাঙ্গুলী,তিনজন কেন্দ্রীয় নেতা ও মন্ডলের সমস্ত কর্মীবৃন্দ এই সংকল্প যাত্রায় রাস্তায় নামবেন।