২৪ ঘণ্টার মধ্যে শক্তি বাড়াবে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। ৮ নভেম্বর ওড়িশা উপকূলে থাকলেও ৯ তারিখেই ঢুকে পড়বে বঙ্গে। যার জেরে ৮০-৮৫ কিলোমিটার বেগে ঝড় হবে উপকূলের জেলাগুলিতে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সতর্ক করা হয়েছে মৎস্যজীবীদের। 

আশঙ্কার কালো মেঘ কাটছে না। আলিপুর হাওয়া অফিস বলছে, বর্তমানে  পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরের উপর রয়েছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। তবে সমুদ্র থেকে জলীয় বাষ্প সংগ্রহ করে আগামী ২৪ ঘণ্টায় আরও শক্তি বাড়াবে এই ঝড়। আগামী দুদিন এর ঝড়ের  অভিমুখ উত্তর পশ্চিম দিকে অর্থাৎ ওড়িশা উপকূলের কাছে থাকবে। সেকান থেকে ৯ ও১০নভেম্বর পশ্চিমবঙ্গের উপকূলে ঢুকে পড়বে এই ঘূর্ণিঝড়। তবে খুশির খবর এটাই, ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গের উপকূলে এসে দুর্বল হয়ে পড়বে এই ঝড়। 

তাই উপকূল হয়ে স্থলভাগে এই বুলবুলের আসার সম্ভাবনা কম । ইতিমধ্যেই ঝড়ের পূর্বাভাস পেয়ে আগামী  ৯ ও ১০ নভেম্বর পর্যটকদের সমুদ্রে নামতে মানা করা হয়েছে। উপকূলে ঘূর্ণিঝড়ের কারণে ৯ তারিখ দুই ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুরে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। এছাড়া এই দিনই  পশ্চিম মেদিনীপুর, হাওড়া,হুগলিতে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। কলকাতাতে ৯ বা ১০ তারিখের মধ্য়ে মধ্যে ভারী বৃষ্টিপাত হবে ।

উপকূলের জেলাগুলো  ৮ থেকে ৬০ থেকে৬৫ কিলোমিটার বেগে ঝড় হবে । ৯ও ১০ নভেম্ভর উপকূলের জেলাতে ৮০ থেকে ৮৫ কিমি বেগে ঝড় বইবে। মূলত এই ঝড়টি বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের উপকূলের কাছেই আসবে। তবে কোথায় গিয়ে পড়বে সেটা এখন বলা সম্ভব নয়। সেকারণে আগেভাগে সবাইকে সতর্ক করা হয়েছে।