বঙ্গবিজেপির নতুন দিদি তিনি। লোকসভা ভোটে জয়ী হয়ে পেয়েছেন কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু কল্যাণ দফতরের দায়িত্ব। কলকাতায় এসেই তোপ দাগলেন দেবশ্রী চৌধুরী।মুখ্যমন্ত্রী সাংবিধানিক পদে অবমাননা করছেন বলে অভিযোগ করলেন নবনির্বাচিত সাংসদ এবং কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু কল্যাণ দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী  দেবশ্রী চৌধুরী। 

মন্ত্রী হওয়ার পরে এই প্রথম  বার তিনি কলকাতায় এসে বিজেপি সদর দফতররে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলেন। তাঁর বক্তব্য, মুখ্য মন্ত্রী বিরোধিতা করতে গিয়ে সৌজন্যর রাজনীতি ভুলে গিয়েছেন। 

দেবশ্রীর দাবি, "কে কি নাম নেবে, কে কোন ভগবানকে ডাকবে সেটা প্রত্যেকেরই ব্যক্তিগত বিষয়। সেটার ওপর তিনি হস্তক্ষেপ করতে চাইছেন। জয় শ্রী রাম ভগবানের নাম। কোনও খারাপ কিছু নয়। তবুও এই নাম নিয়ে এত বিতর্ক কেন! বাম আমলে এরকম আচরণ দেখা যায়নি।  শুধু এই নয় তাঁর ভাষার অনেক পরিবর্তন হয়েছে। লাগামহীন ভাষা প্রয়োগ করেছেন। উলটো দিকে মোদী বা শাহ অ রাজ্যে প্রচারে এসে কখনও খারাপ ভাষা প্রয়োগ করেননি।"

এখানেই শেষ নয়, নারীসুরক্ষা নিয়েও চূড়ান্ত  উদ্বিগ্ন দেবশ্রী। তাঁর মতে, নারী পাচারে প্রথম স্থান পশ্চিমবঙ্গের। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী একজন মহিলা তাই রাজ্যের মানুষ ভেবেছিলেন  রাজ্যের মহিলাদের জন্য  বিশেষ ব্যবস্থা করবেন। কিন্তু কিছু হয় নি।"

কাজের ফিরিস্তি দিয়ে জানালেন, সোমাবার দিল্লিতে নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রক একটি বৈঠক ডেকেছে। ১০০ দিনের  কাজের একটা প্ল্যানিং তৈরি করা হবে।  দিল্লিতে স্মৃতি ইরাণী একটা বৈঠক করবেন। 

দেবশ্রী এদিন অবশ্য সৌজন্যের দরজা খোলা রাখলেন। বললেন, "আমি একজন মন্ত্রী হিসাবে আশা করব, কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু কল্যান মূলক কাজে রাজ্য সরকার পূর্ণ সহযোগীতা করবে।"