রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে ফের সরব হলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। করোনা থেকে আমফান সমস্ত বড় ধরনের বিপর্যয় মোকাবিলায় রাজ্য সরকার ব্যর্থ বলে অভিযোগ করেন তিনি। পাশাপাশি, তিনি আরও বলেন, রাজ্যের সবকিছুই অনিয়মে চলছে। তার জেরে সমস্যায় পড়ছেন সাধারণ মানুষ। রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি হয়েছে। গণতন্ত্রের অধিকার মানুষেরে নেই বলেও অভিযোগ করেন বিজেপির রাজ্য় সভাপতি। শনিবার নিউটাউনে ইকোপার্কে প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে একথা বলেন দিলীপ ঘোষ।

রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্য সরকারের বারবার সমালোচনা করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। সংবিধান মেনে সরকারকে কিছু পদক্ষেপ করারও নির্দেশি দিয়েছিলেন। কিন্তু, রাজ্য সরকার রাজ্যপালের সঙ্গে বিরোধী পক্ষের মতো আচরণ করছে বলে অভিযোগ করেন দিলীপ ঘোষ।

করোনা আবহে থেমেছে রাজ্যের আর্থিক গতি। কাজ না পেয়ে চূড়ান্ত দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। এই পরিস্থিতি মোকাবিলাতেও রাজ্য সরকার ব্যর্থ বলে অভিযোগ করেন দিলীপ ঘোষ। তৃণমূল নেতাদের রেশন দুর্নীতির জেরে সাধারণ মানুষ চাল, গম পাচ্ছেন না। আবার, করোনা মোকাবিলায় রাজ্যের জন্য কয়েক হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু সেই টাকা সঠিকভাবে খরচ করা হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন দিলীপ ঘোষ। পাশাপাশি, আমফানের জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিলেন সাধারণ চাষিরা। অনেকের বাড়ি ঘর নেই, কিন্তু রাজ্য সরকার এ বিষয়ে উদাসীন বলেও অভিযোগ করেন তিনি। 

অন্যদিকে, পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানোর নিয়েও সরকারের ভূমিকার কড়া সমালোচনা করলেন দিলীপ ঘোষ। কতজন শ্রমিক ভিন রাজ্য থেকে এসেছেন? তার কোনও নির্দিষ্ট পরিসংখ্যান রাজ্য সরকারের কাছে নেই বলেও দাবি করেন তিনি। এই সব একাধিক ঘটনার প্রতিবাদে সরব বিজেপি। রাজ্যে গণতন্ত্র ফেরাতে বিজেপি পথে নেমে আন্দোলন করছে বলেও জানালেন দিলীপ ঘোষ।