বাঙালির বারো মাসে তেরো পার্বণ আর সেই তেরো পার্বণের মধ্যে সব থেকে বড় উৎসব দুর্গাপুজো। বাঙালিরা সারা বছর ধরে এর জন্যই অপেক্ষা করে থাকে। হাতে আর মাত্র কটা দিনের অপেক্ষা আর তার পরেই আসছে পুজো। এক বছরের অপেক্ষা শেষ করে আবার উমা বাপের বাড়ি আসছে। আর সেই আনন্দেই সাজো সাজো রব সব জায়গায়। আকশের নীল মেঘ আর কাশ বন মায়েরই ঘরে ফেরার বার্তা দিচ্ছে। আর সেই আনন্দেই মেতে উঠেছে পাড়ার ক্লাবগুলি।বেলেঘাটা নবমিলন সংঘের পুজোর কাজও ইতিমধ্যেই শেষের পথে। গত বারের মত এবারও সেখানে থাকছে বিশেষ চমক।  

এবার বেলেঘাটা নবমিলন ক্লাব এ মাতৃ আরাধনার এক ভিন্ন রূপ দেখতে পারবেন দর্শকরা। এবারের বেলেঘাটা নবমিলনের থিম- 'মায়ের খোলা মন'। শিল্পী সুদীপ মন্ডল এর কথায়- 'মা যখন বৃদ্ধ হয়ে যায়, ছেলে মেয়েরা নিজেদের কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকে। তাঁরা, মা কে দেখা শোনা বা সেবা কোনোটাই করতে পারেন না। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মানসিক দিক থেকে পঙ্গু হয়ে ওঠা ছেলে মেয়েরা যাতে মায়ের একাকীত্ব বোধ কে বুঝতে পারে' সেই চেষ্টার ই এক ঝলক দেখা যাবে এই মণ্ডপ- এ। 

এবারে নবমিলন ক্লাব এর বাজেট বারো লাখ। অসাধারণ মণ্ডপটির নির্মাণ কাজে ব্যবহার করা হয়েছে-বাঁশ, কাঠ,শোলা। মন্ডপের মূল আকর্ষণ এ থাকছে এক আয়না যা দর্শকদের সামনে বর্তমান পরিস্থিতিটা তুলে ধরবে। প্রতিবারের মতো এবারও উদ্যোক্তারা এবং শিল্পী সুদীপ মন্ডল মণ্ডপ নিয়ে যথেষ্ট আশাবাদী। শিল্পী সুদীপ মন্ডল এর মতে এরকম থিমের সাবজেক্ট কলকাতা তে সেই ভাবে দেখা যায়নি এর আগে।