আচমকাই বেজে ওঠে টেলিফোন। ফোনের ওপার থেকে ভেসে আসে এক সন্দেহভাজনের গলা। ব্যাঙ্গালোর বিমানবন্দরে ফোন করে জানানো হয় যে মাঝ আকাশেই নাকি উড়িয়ে দেওয়া হবে এয়ার এশিয়ার বিমান। মাঝ আকাশে থাকা বিমানটিকে সঙ্গে সঙ্গে কলকাতা বিমানবন্দরে অবতরণ করানো হয়। ব্যাঙ্গালোর বিমানবন্দর থেকে ফোনে বিষয়টি জানানো হয় কলকাতা বিমানবন্দরে। তারপরই নেওয়া হয় ব্যবস্থা। 

জানা গিয়েছে এয়ার এশিয়ার ওই বিমানে ছিল ১৮০ জন যাত্রী। বাগডোগরা থেকে কলকাতামুখী এয়ার এশিয়ার বিমানটি মাঝ আকাশেই উড়িয়ে দেওয়া হবে বলে হুমকি দেওয়ার পরই বিমানটির জরুরি অবতরণ করানো হয়েছে। এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, ওই ১৮০ জন যাত্রীকেই নিরাপদে বের করে আনা হয়েছে। বিমানটিকে খালি করে শুরু করা হয়েছে তল্লাশি। ঘটনাস্থলে ইতিমধ্যেই উপস্থিত হয়েছে বোম্ব স্কোয়াডের লোক, রয়েছে সিআইএসএফ-এর সদস্যরা। কে বা কারা ওই ফোন করেছে তা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি। বিশ্বস্ত সূত্রে খবর, একটি এসটিডি বুথ থেকে ফোনটা এসেছিল।