বেড থাকলেও করোনা রোগীদের ফিরিয়ে দিচ্ছে বেসরকারি হাসপাতাল। বার বার রাজ্য় সরকার বলা সত্ত্বেও কাজ হচ্ছে না। বাধ্য হয়ে এবার বেসরকারি  হাসপাতালগুলিকে নোটিস পাঠাল রাজ্য় সরকার।  যেখানে বলা হয়েছে, বেড থাকতেও কোনও করোনা রোগী ফেরত পাঠালে বেসরকারি হাসপাতালগুলির লাইসেন্স বাতিল করবে সরকার।

 নবান্ন সূত্রে খবর, মঙ্গলবার পরপর   এই বিষয়ে দু’টি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, করোনা আবহে কোনও রোগীকে সরকারি কিংবা বেসরকারি হাসপাতাল ফেরাতে পারবে না। এরকম কোনও খবর সত্য়ি  প্রমাণিত  হলে বিভাগীয়  প্রধানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে সরকার। নিয়ম মেনে করোনা রোগীদের বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা করার কথা বলা হয়েছে নোটিসে।

বলা হয়েছে, রোগী  ফেরালে সার্ভিস রুল অনুযায়ী কড়া পদক্ষেপ নেবে রাজ্য় সরকার।  একইভাবে রোগী ফেরালে বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধেও নেওয়া হবে কড়া ব্যবস্থা। এমনকী ২০১৭ সালের আইন অভিযুক্ত হাসপাতালের লাইসেন্সও বাতিল করা হতে পারে। বিজ্ঞপ্তিতে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে সেই কথা।

কদিন আগেই বেসরকারি  হাসপাতালগুলিকে করোনা চিকিৎসার খরচ নিয়ে একহাত নেয় রাজ্য় সরকার। ২৫টি বেসরকারি হাসপাতালকে ডেকে লাগামছাড়া করোনা চিকিৎসার বিল নিয়ে বৈঠক করেন মুখ্য়সচিব। বলা হয়, হাসপাতালের ডাক্তার -স্বাস্থ্য়কর্মীদের পিপিই ও মাস্কের টাকা রোগীর থেকে ধার্য করা হচ্ছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে অনেক ক্ষেতেই লাগামছাড়া চার্জ  করছে হাসপাতাল। খোদ মুখ্য়মন্ত্রীর কাছে এ নিয়ে অভিযোগ করেন শাসক দলের মন্ত্রীরা।