সাত সকালে রোদের দেখা মিললেও বেলা বাড়তেই বৃষ্টি। নবমীতেও দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় চলল বৃষ্টির প্রকোপ। ফলে সকাল সকাল পুজো দেখার ভিড়ে বাদ সাধল বৃষ্টি।

দেবী আরাধনায় পিছু নিয়েছে বৃষ্টি। পেঁজা তুলোর বদলে আকাশে উড়ে বেড়াচ্ছে কালো মেঘ। পুজোর ভিড়ে দর্শনার্থীদের মাঝেই উপচে পড়ছে বৃষ্টির ঘনঘটা। নবমীর সকাল বলছে, দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টিতে ভিজেছে পশ্চিম মেদিনীপুর,পূর্ব বর্ধমানে, উত্তর ২৪ পরগনা এমনকী নদিয়ায় বিস্তীর্ণ অঞ্চল। আবহাওয়া অফিস বলছে, মায়ের বিদায়ের দিনেও রাজ্যজুড়ে জারি থাকবে বৃষ্টি। দশমীতেও  দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বৃষ্টি হবে। বৃষ্টির হানাদারি থেকে বাদ যাবে না কলকাতাও। কলকাতা ছাডা়ও কলকাতা সংলগ্ন বেশকিছু অঞ্চলে বৃষ্টি হতে পারে।

তবে হাওয়া অফিস জানিয়েছে,কলকাতায় বৃষ্টি হলেও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা কম। সেক্ষেত্রে সকালে মাকে দেখে নিতে পারবেন দর্শনার্থীরা। দশমীতে বৃষ্টি হলে এমনিতেই দেবী বিসর্জন দিতে সমস্যার সৃষ্টি হবে। পিচ্ছিল পরিবেশে ঠাকুর নামাতে বিপত্তি হওয়ার আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে। ইতিমধ্যেই গঙ্গায় ঠাকুর বিসর্জন দেওয়া নিয়ে আপত্তি তুলেছে কেন্দ্র। এ বিষয়ে রাজ্য় সরকারের কাছে ইতিমধ্যেই নোটিশ পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।