ভোট পরবর্তী হিংসা থামছেই না। বরং তা দিন দিন নির্লজ্জ সাম্প্রদায়িক রূপ নিচ্ছে। সন্দেশখালি হোক বা এনআরএস, যে কোনও সমস্যাতেই বারবার এসে পড়ছে মেরুকরণ।  তার বিরোধিতা করতেই কলকাতার তপন থিয়েটারে একজোট হলেন বিদ্বজনেরা।সভায় উপস্থিত শঙ্খ ঘোষ, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, কৌশিক সেন, অপর্ণা সেন রুদ্রপ্রসাদ সেনগুপ্তের মতো বিদ্বজনেরা। এদিন সভাস্থল থেকেই অপর্ণা সেন বলেন, আমাদের সাহসের সঙ্গে এগিয়ে আসতে হবে। আমরা দেখিয়ে দেব ভারত কোনও হিন্দু রাষ্ট্র নয়। দলিতের বিরুদ্ধে সমস্ত অন্যায়ের সঙ্গে লড়ব আমরা। অপর্ণা দুঃখ আরও বলেন, 'কলকাতায় তর্ক হত। জিউসরা ছিলেন, আর্মেনিয়ানরা ছিলেন। কিন্তু এই হিংসা কখনও দেখিনি।  আমার অনুরোধ আমরা যদি ভালবাসার বার্তাটা পৌঁছে দিতে পারি, তবে কাজ হতে পারে।' নাগরিক সমাজের মৌনতা নিয়ে মুখ খোলেন রুদ্রপ্রসাদ সেনগুপ্ত। সভাস্থল থেকে বক্তব্য রাখেন কৌশিক সেনও। কৌশিক সেন বলেন, 'শত্রুকে চিহ্নিত করা যাচ্ছে না। আমরা পরম বন্ধু মনে করতাম কমিউনিস্ট পার্টিতে। তাঁরাই আমাদের শত্রু হয়েছে। ইতিহাস আমাদের সচেতন হয়ে সিভিল সোস্যাইটি মুভমেন্টের সুযোগ দিয়েছিল। আমরা সেই সুযোগকে জলাঞ্জলি দিয়ে কমিটিতে ঢুকে পড়েছি।'