সখা ক্যাবেও এবার থাকবে স্যানিটারি প্যাড। সখা ক্যাবের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে মহিলার পথ চলাকে আরও মসৃণ করে তুলেতে বরাবরের মতো এগিয়ে আসলেন কলকাতার প্যাডম্যান শোভন মুখোপাধ্য়ায়। উল্লেখ্য সমস্যা থেকে মেয়েদের মুক্তি দিতে আগেও নয়া উদ্যোগ নিয়েছেন শোভন।  

আরও পড়ুন, মোদীর সভার দিনেই গ্য়াসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে মহামিছিলে মমতা, আজ দুপুরেই শিলিগুড়ি পাড়ি  

 

 

 ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবসের দিনেই সখা ক্যাবে স্যানিটারি প্যাডের উদ্ধোধন হবে। অর্থাৎ এই সখা গাড়িতে ভ্রমণ করলে শহরের যেকোনও প্রান্তে মহিলা যাত্রীরা প্রয়োজনে চাইলেই স্যানিটারি প্যাড পাবেন। আর নামতে হবে না গাড়ি থেকে। এই সখা গাড়িটি মূলত দিল্লি থেকেই সূচনা হয় এবং কলকাতায় এইমুহূর্তে ৫ টি সখা গাড়ি চলাচল করছে শহর কলকাতায়।  উন্নয়ন ও সচেতনতামূলক এই কাজে শোভন মুখোপাধ্য়ায়ের দিকে সাহায্যের হাত এগিয়ে দিয়েছেন কলকাতায় সখা কনসালটিং উইংসের প্রধান পারমিতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। উল্লেখ্য   শহরের এই ৫ টি ক্যাবই চালান মহিলারা। ঘটনাচক্রে একবার এক মহিলা যাত্রীর প্রয়োজন পড়তেই সখা ক্যাবের মহিলা চালক নিজের ব্যাগের থেকে স্যানিটারি প্যাড বার করে দেন। তবে এবার থেকে এই সমস্যায় আর পড়তে হবে না, তিলোত্তমাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে বড়সড় পদক্ষেপটা আবারও নিয়ে ফেললেন শোভন। 

আরও পড়ুন, মোদীর 'স্বাধীনতা-কমিটি'তে সনিয়া-মনমোহন, ভোটের পর 'ভিক্টোরিয়া' ভূলে থাকবেন কি মমতাও  

 


 

 

প্রসঙ্গত,  পিরিয়ডটা বিষয়টা আজও যেন লুকোছাপা হয়েই রয়ে গেছে। রাস্তাঘাটে যখন তখন বিপদে পড়তে হয় মেয়েদের।  আর তারপর দোকানে গিয়ে প্যাড কেনাটা যেন আরও বড় সমস্যার ব্যাপার। আর সেই সমস্যা থেকে মেয়েদের মুক্তি দিতে আগেও নয়া উদ্যোগ নিয়েছেন শোভন মুখোপাধ্য়ায়। কলকাতার সমস্ত পাবলিক টয়লেটে  ন্যাপকিন ভেন্ডিং মেশিনের উদ্যোগেও ছিলেন কলকাতার এই প্যাডম্যান।   একটাই উদ্দেশ্য কলকাতার সমস্ত পাবলিক টয়লেটে যেন এই সুবিধা থাকে। কলকাতাকেই দেশের প্রথম শহর হিসেবে গড়ে তোলার স্বপ্ন শোভনের। যেখানে সব জায়গায় এই সুবিধা পাওয়া যাবে।  কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় এই মেশিন বসিয়েছেন শোভন। মাত্র ২ টাকা দিলেন বেরিয়ে আসে ন্যাপকিন। পাশাপাশি বাসে রুপান্তরকামীদের জন্য আশন সংরক্ষণও প্রথম কলকাতায় চালু করেন শোভনই।
 

আরও পড়ুন, রবিবার মোদীর সভায় অক্ষয়কুমার, প্রধানমন্ত্রীর বিগ্রেডে সমাবেশে থাকতে পারেন মিঠুনও