অল্পদিনের পরিচয়ে এক যুবকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক জড়িয়ে পড়েছিলেন এক তরুণী।  কিন্তু সম্পর্ক চালিয়ে যেতে রাজি হননি। সেই আক্রোশেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই তরুণীর আপত্তিকর ছবি যুবকটি পোস্ট করে দেয় বলে অভিযোগ। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে বিধাননগর কমিশনারেটের সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ।

অভিযুক্তের নাম দীপনারায়ণ গুপ্তা। বাড়ি, বর্ধমানে। তবে কাজের সুবাদে কলকাতার বাগুইআটির জোড়ামন্দির এলাকায় থাকে দীপ। একটি বেসরকারি ব্যাঙ্কে চাকরি সে। অভিযোগকারী তরুণীর দাবি, দিন কয়েক আগে যখন চিকিৎসাজনিত কারণে সপরিবারে বেঙ্গালুরুতে গিয়েছিলেন তিনি, তখন দীপের সঙ্গে পরিচয় হয়। ওই যুবকও চিকিৎসাজনিত কারণেই পরিবারের সঙ্গে বেঙ্গালুরুতে গিয়েছিল। অল্পদিনে দু'জনের মধ্যে ঘনিষ্ট সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিন্তু সেই সম্পর্ক বেশি স্থায়ী হয়নি। দীপনারায়ণের সঙ্গে সম্পর্কে ইতি টানেন অভিযোগকারী তরুণী। ওই তরুণীর অভিযোগ, সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর তাঁর বেশ কয়েকটি আপত্তিকর ছবি সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট করে দিয়েছে দীপনারায়ণ গুপ্তা।  বিধাননগর কমিশনারেটের সাইবার ক্রাইম থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই তরুণী। বাগুইআটির জোড়ামন্দির এলাকার বাড়ি থেকে অভিযুক্ত দীপনারায়ণ গুপ্তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

কখন কোথায়, কার সঙ্গে কে সম্পর্ক জড়িয়ে পড়বে, তা আগে বলা সম্ভব নয়।  সব সম্পর্ক পরিণতি যে সুখের হবে, এমনটা কিন্তু নয়। কিন্তু স্রেফ সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার কারণে ইদানিং সম্মানহানি করা হচ্ছে মহিলাদের। এমনকী, প্রাক্তন প্রেমিকার আপত্তিকর ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিতেও দ্বিধা করছেন না অনেকেই।  কেউ কেউ পরিচিত কোনও তরুণীর আপত্তিকর ছবিও পোস্ট করে দিচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। দিন কয়েক আগে তেমনই একটি ঘটনা ঘটেছিল পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরে। অভিযুক্তকে গ্রেফতারও করে পুলিশ।