টানা কয়েকদিন গরমে কষ্ট পাওয়ার পরে অবশেষে ভাল খবর দিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। বিগত কয়েকদিনে বেশ কিছুটা তাপমাত্রা কমেছে। 

আলিপুর আবহাওয়া অফিস অনুযায়ী, তাপমাত্রা অনেকটাই কমে গিয়েছে। সোমবার কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫.২ ডিগ্রি, যা স্বাভাবিকের চেয়ে ২ ডিগ্রি কম বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭ ডিগ্রির আশপাশে থাকছে। স্বস্তির খবর হল, নতুন করে এই মুহূর্তে আর গরম পড়বে না বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। 

তবে আগামী ৫ ও ৬ জুন বাংলাদেশ সংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গের জেলা, অর্থাৎ উত্তর ও দক্ষিণ  ২৪ পরগণা,  পূর্ব মেদিনীপুর,কলকাতা, হাওড়া, হুগলিতে বৃ্ষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। বাকি জেলাগুলিতেও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। 

দক্ষিণবঙ্গেই বেশি বৃষ্টি হলেও, উত্তরবঙ্গেরও বেশ কিছু জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ  বৃষ্টি হবে বলে জানা গিয়েছে। এই মুহূর্তে উত্তর পশ্চিম রাজস্থান থেকে মিজোরাম পর্যন্ত একটি নিম্নচাপ অক্ষরেখা রয়েছে, যা পশ্চিমবঙ্গের উপর দিয়েই গিয়েছে। এছাড়াও আরও একটি সিস্টেম রয়েছে বাংলাদেশের উত্তর থেকে হিমাল‌য় সংলগ্ন এলাকায়। এই দুটি ঘূর্ণাবর্তের জন্যই বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। মূলত বাংলাদেশে বেশি বৃষ্টি হলেও, এখানের জেলাগুলিতেও বৃষ্টি হবে। তবে এর সঙ্গে দক্ষিণ পশ্চিমের বাতাসও বাংলায় ঢুকে পড়ছে বলে এই বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছেন হাওয়া অফিসের অধিকর্তা। 

কেরলেও খুব শীঘ্রই বর্ষা ঢুকছে। তবে কলকাতায় ১জুন থেকেই প্রাক বর্ষার বৃষ্টি শুরু হয়ে গিয়েছে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। কারণ গ্রীষ্মে সাধারণত বিকেল থেকে বৃষ্টি শুরু হয়। কিন্তু প্রাক বর্ষায় সকাল থেকেই আকাশ মেঘলা থাকছে। তবে বর্ষা যত এগোবে বজ্র বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি থাকলেও কমে যাবে হাওয়ার গতিবেগ। আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্য়ে মৌসুমী বায়ু কেরলে ঢুকে পড়ছে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস।