মালদা থেকে মেদিনীপুর, দিনাজপুর থেকে ২৪ পরগণা -  সকাল থেকেই বিভিন্ন জেলা থেকে দলে দলে তৃণমূল কর্মীরা আসছেন কলকাতায়। আর তার জেরে রবিবারের দিনেও নাকাল হতে হল সাধআরণ মানুষকে।
রাস্তায় দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়েও দেখা মেলেনি বাসের। যে সব বাস গাড়ি রাস্তায় চলছে, তা সবই তৃণমূলকর্মীদের দখলে। তৃণমূলের পতাকায় মোড়া একের পর এক বাস-গাড়ির সামনে অসহায়ভাবে দাঁড়িয়ে থেকেছেন সাধারণ মানুষ।

শুধু তাই নয়, বহু মানুষ পথদিশা অ্যাপে সরকারি বাস ধরার চেষ্টা করেও বিপদে পড়েছেন। অ্যাপ দেখে অনেকেই বাসস্ট্যান্ডে এসে বাস ধরতে গিয়ে দেখেছেন, তাতে তৃণমূলের পতাকা গোঁজা। অর্থাৎ তার গন্তব্য ধর্মতলার সভাস্থল। বিধাননগরের করুণাময়ী বাসস্ট্যান্ড, মৌলালি থেকে শুরু করে কলকাতায় বিভিন্ন এলাকার ছবিটাই একরকম।

হাওড়া ব্রিজের উপর দিয়েও বিশাল মিছিল করে সভাস্থলের দিকে রওনা দেন। পুলিশ মোটা দড়ি ফেলে যানবাহন আটকে রেখে মিছিল যাওয়ার রাস্তা করে দেন পুলিশ কর্মীরা। ফলে হাওড়া ব্রিজ এলাকায় বিশাল যানজটের সৃষ্টি হয়।

অন্যান্য বছর হয়তো এই ভোগান্তিটা সাধারণ মানুষ মুখ বুজে মেনে নিতেন। কিন্তু, এই বছর ছবিটা একটু অন্যরকম দেখা গেল। দীর্ঘক্ষণ জ্যামে আটকে থাকা সাধারণ মানুষ পুলিশ কর্মীদের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়লেন। এই ঘটনা কি পরিবর্তনের ইঙ্গিত?