এবার বাইক সার্ভিস সেন্টারের ফোন নম্বর হ্যাক করে টাকা প্রতারণার অভিযোগ উঠল খাস কলকাতায়। ঘটনাটি ঘটেছে, কলকাতার তারাতলা থানার ব্রিজব্রিজে। খবর সামনে আসতেই লালবাজার সাইবার ক্রাইমে অভিযোগ দায়ের করেছে সার্ভিস সেন্টারের মালিক। 

এটিএম প্রতারণা রেশ না কাটতেই এবার ফোন নম্বর হ্যাক করে প্রতারণা শহরে। অভিনব কায়দায় এই প্রতারণার খবর শুনে হতবাক হয়েছেন খোদ পুলিশ কর্তা। ইতিমধ্য়েই তদন্ত  শুরু করেছে লালবাজার। যদিও অনলাইন লেনদেনের এই ঝুঁকি নিয়ে চিন্তায় পড়েছে ব্যাঙ্কগুলিও। তৃতীয় বিশ্বের দেশে বেড়েই চলেছে এই ঘটনা। যার ফলে অসুরক্ষিত হয়ে পড়ছে মোদী সরকারের ডিজিটাল ইন্ডিয়ার স্বপ্ন। 

অভিযোগকারী শুভম সিং জাানিয়েছেন, তাড়াতাড়ি বাইক সার্ভিস করানোর জন্য সম্প্রতি তারাতলার একটি সার্ভিস সেন্টারে ফোন করেন তিনি। যদিও সার্ভিস সেন্টারের তরফে জানানো হয়, দুদিনের আগে তাঁর বাইক সার্ভিস করে দেওয়া সম্ভব নয়। তবে পাঁচ টাকা অনলালইনে দিয়ে বুকিং করলে তাঁর সমস্যার সমাধান হবে। অগ্রাধিকারের ভিত্তিকে এক দিনের মধ্য়ে বাইক সার্ভিসিং করে দেবেন তাঁরা। এরপরই সার্ভিসিং সেন্টারের দেওয়া লিঙ্কে ৫টাকা পাঠান শুভম।

কিন্তু ব্যাঙ্ক স্টেটমেন্ট চেক করে তিনি দেখেন, ৫ টাকার  পরিবর্তে তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে ৪২০০ টাকা কেটে নেওয়া হয়েছে। পরে সার্ভিস সেন্টারে গেলে তিনি জানতে পারেন ,তাদের এরকম কোনও পরিষেবাই নেই। প্রশ্ন ওঠে, তাহলে সার্ভিস সেন্টারের কর্মী হিসাবে কে কাজ করল ? বিষয়টি  জানাজানি  হতেই তাঁদের ফোন নম্বর হ্য়াক করে প্রতারণার অভিযোগ এনেছেন সার্ভিস সেন্টারের মালিক। এ ব্যাপারে তারাতলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। অন্যদিকে, লালবাজার সাইবার ক্রাইমে এ নিয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন শুভম। প্রতারণা চক্রের উৎস খুঁজতে তদন্তে নেমেছে পুলিশ। খতিয়ে দেখা হচ্ছে প্রতারণার লিঙ্ক ও ফোন নম্বর।