ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। মিটে গিয়েছে। তৃণমূলে ছিলাম। তৃণমূলেই আছি। তাঁর দলবদলের জল্পনা নিয়ে কানাঘুষোর মধ্যেই প্রথমবার মুখ খুললেন দেবশ্রী রায়। স্পষ্ট করলেন তাঁর রাজনৈতিক অবস্থান। আজ অনেকদিন পর বিধানসভায় দেখা যায় দেবশ্রী রায়কে। প্রিভিলেজ কমিটির বৈঠকে যোগ দিতে এসেছিলেন দেবশ্রী রায়। 

বিধানসভাতেই সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন রায়দিঘি তৃণমূল বিধায়ক। তিনি জানান, আর কোনও ভুল বোঝাবুঝি নেই। সব মিটে গিয়েছে। তিনি তৃণমূলেই আছেন ও থাকবেন। এমনকী খুব শিগগিরই তিনি 'দিদিকে বলো' কর্মসূচিতে যোগ দেবেন বলেও জানান রায়দিঘির বিধায়ক। আগে কিছু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। অনেকেই ভুল বুঝেছে। সবাই জানে আমি তৃণমূলে আছি। এত বিতর্ক তৈরি হওয়াটা ঠিক নয়। 

কদিন আগেই খবর রটে , বিজেপিতে যোগ দিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীকে চিঠি লিখেছেন দেবশ্রী রায়। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গেলে তাঁর আঁটোসাটো নিরাপত্তা লাগবে বলে জানিয়েছেন অভিনেত্রী বিধায়ক। শুধু তাঁকে নিরাপত্তা দিলেই হবে না। নিরাপত্তা দিতে হবে তাঁর সচিবকেও। বিজেপি সূত্রের খবর, গত ২০ অক্টোবর বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহকে চিঠি লিখে এমনই জানান দেবশ্রী রায়। যদিও চিঠির কথা সরাসরি অস্বীকার করেছেন তিনি। এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তৃণমূলের বিধায়ক বলেন,বিজেপির নেতৃত্ব চান তিনি দলে আসুন তাই এই ধরনের কথা বলা হচ্ছে। জোর গলায় তিনি জানিয়ে দেন, তৃণমূলেই আছেন তিনি। কেউ যদি এই ধরনের কথা বলে তাঁর অস্বস্তি বাড়ান তাহলে মানহানির মামলা করবেন তিনি।


রাজ্য় রাজনীতির  অতীত ঘাঁটলে দেখা যাবে,বিজেপিতে যোগ দিতে দিলীপ ঘোষের সল্টলেকের  বাড়িতেও এসেছিলেন অভিনেত্রী। কিন্তু বিজেপির রাজ্য সভাপতি বাড়িতে না থাকায় সে যাত্রায় দিলীপ ঘোষের সঙ্গে কথা হয়নি তাঁর। পরে অবশ্য় দেবশ্রী রায়ের পক্ষেই কথা বলেন মেদিনীপুরের সাংসদ। দিলীপ ঘোষ বলেন, দেবশ্রী রায় বিজেপিতে যোগ দেবেন কি দেবেন না তা দল ঠিক করবে। বিজেপি কোনও ব্যক্তি কেন্দ্রীক দল নয়। তাই কে দলে যোগ দেবে তা কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব ঠিক করে দেবে।

অতীতে তাঁর বিজেপিতে যোগদানের পথে প্রধান বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। নায়দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতরে রায়দিঘির তৃণমূল বিধায়ককে দেখে একেবারে চমকে যান তিনি। সূত্রের খবর, দেবশ্রী বিজেপিতে যোগ দিলে তিনি বৈশাখী যোগ দেবেন না বলে সরাসরি জানিয়ে দেন শোভন। যার জেরে সেই যাত্রায় দেবশ্রীর বিজেপিতে যোগদান আটকে যায়। সংবাদ মাধ্য়মে শোভন বলেন, যেভাবে তাঁর সঙ্গে বৈশাখীর সম্পর্ক নিয়ে দেবশ্রী জড়িয়েছিলেন, তা তাঁর খারাপ লেগেছে। তাই নতুন করে দেবশ্রী যে দলে থাকবে সেখানে তিনি থাকবেন না।