দক্ষিণ দমদম পৌরসভার ১২ জন কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাই দক্ষিণ দমদম পৌরসভা বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল পৌরসভার বিদায়ী চেয়ারম্যান পাচু রায়। আগামী রবিবার পর্যন্ত পৌরসভা বন্ধ থাকবে। তবে বিদায়ী পুরপ্রধান জানিয়েছেন, প্রত্যেকদিনই পৌরসভা ভবন স্যানিটাইজ করা হবে। এই মুহূর্তে জনগণকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা দেওয়ার পরিষেবা বন্ধ হবে না। 

রাজ্য়ের সাম্প্রতিক চিত্র বলছে কলকাতার পাশাপাশি এই মুহুর্তে করোনা হানা  দিয়েছে  উত্তর ২৪পরগণায়। প্রতিদিনই জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া বাড়ছে। বেগতিক দেখে রাজ্য়ের চার জেলায় নোডাল অফিসার নিয়োগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। কলকাতা, ছাড়াও উত্তর ২৪পরগণা, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, হাওড়ায় চার অফিসার নিয়োগ করা হয়েছে। যদিও স্বাস্থ্য় ভবনের বুলেটিন বলছে, রাজ্য়ে কনটেইনমেন্ট জোনে ফের লকডাউন ঘোষণা হওয়ায় সামান্য কিছু কমেছে প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা। আগে যেখানে নিত্যদিন রেকর্ড ভেঙে চলেছিল করোনা এখন তা কিছুটা হলেও কমেছে।

এ  বিষয়ে দক্ষিণ দমদম পৌরসভার বিদায়ী চেয়ারম্যান পাচু রায় বলেন, অনেকেই এই সময় মাস্ক না ব্যবহার করে মস্তানি করছেন। সব দলের নেতাদেরই এই সময় এই ভয়াবহ মস্তানিটা  করতে দেখা যাচ্ছে। তাদের বুঝতে হবে,দেশের এই ভয়াবহ বিপর্যয়ের সময় যা এই কাজ  করছেন তারা  দেশদ্রোহী। এই বলেই থেমে থাকেননি তিনি। পাচুবাবু বলেন, এখানে সবাই পাবলিক সার্ভিসের কাজ করে। এরকম একটা  সময়ে পৌরসভার  এত কর্মী  করোনা আক্রান্ত, তাই নতুন করে অফিস খোলা রেখে জনগণকে বিপদে ফলতে  পারিনা আমরা।