পশ্চিমী ঝঞ্ঝা সরতেই নেমে তাপমাত্রা নেমে এল শহর কলকাতায়। অসময়ের বৃষ্টি বিদায় নিতেই আজ সোমবার থেকেই জাঁকিয়ে শীত পড়েছে শহরজুড়ে। ঘন কুয়াশায় সূর্যোদয় হল আজ শহরে। কুয়াশা কেটে যেতেই  আকাশ পুরোপুরি  পরিষ্কার হয়ে যাবে। আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী, এই মুহূর্তে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে নামলেও তা দীর্ঘস্থায়ী হবে না। 

 

 

কলকাতায় আজ সারাদিন আকাশ  পরিষ্কার থাকবে। আজ সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১২.৬  ডিগ্রী সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা  ২১.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে চার ডিগ্রি কম। আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী, মঙ্গলবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকতে পারে  ১২.৬   ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি।  শহরের বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯৮  শতাংশ। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ন্যূনতম ৭৯ শতাংশ। তাপমাত্রা সামান্য বাড়লেও স্বাভাবিকের নীচেই থাকবে পারদ। গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়নি শহর কলকাতায়।

আরও পড়ুন, আটকে বিচারকদের পদোন্নতি, মমতার সরকারের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছে হাইকোর্ট

শহরে, আগামী ২৪ ঘণ্টায়  তাপমাত্রা নামার আরও কিছুটা সম্ভাবনা রয়েছে।  গত দুই দিনে প্রায় চার ডিগ্রি নেমে এল পারদ। পশ্চিমী ঝঞ্ঝা এবং পুবালি হাওয়ার সংঘাতে গত কয়েকদিন বৃষ্টি শুরু হয়েছে।   ঘূর্ণাবর্তের হাওয়া যত শহরের ভিতরে প্রবেশ করেছে, তত পূর্ব দিন থেকে হাওয়ার পরিমাণ বেড়েছে। এর অন্য়তম কারণ,একদিকে পাহাড়ের দিক থেকে ধেয়ে আসা ঝঞ্ঝা ও অপরদিকে সমুদ্রের দিক থেকে আসা পূবালী হাওয়া। এরফলেই  কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে গত কয়েকদিন  অঝোর ধারায় বৃষ্টি হয়েছে। তাই পারদ নামতেই জাঁকিয়ে শীত কলকাতা সহ পার্শ্ববর্তী এলাকায়। তবে এই  শীত বড়ই ক্ষণস্থায়ী। বুধবারের পর  আবারও আবহাওয়ার পরিবর্তনের প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে।পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে আবারও মেঘলা আকাশ। দু-এক জায়গায় হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা। আজ থেকে বুধবার পর্যন্ত বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি শিলা বৃষ্টির পূর্বাভাস পাঞ্জাব, চণ্ডীগড় , দিল্লি, জম্মু-কাশ্মীর,হরিয়াণা, হিমাচল প্রদেশ ও উত্তরাখণ্ডে। আজ, সোমবার কলকাতায় সকালে কুয়াশা থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে আকাশ পরিষ্কার হয়ে যাবে।