খবরেই থাকেন তিনি। বিজেপির রাজ্য সভাপতির গতায়তের কোনও খবরই সংবাদমাধ্যমের চোখ এড়ায় না। তবে এবার তিনি শিরোনামে এসেছিলেন অন্য ভাবে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিও-য় দেখা যায় দিলীপ ঘোষ বলছেন, 'হিন্দু অনেক মরেছে আরও কিছু মরুক।' দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে শুরু ভিডিও। অন্য দিকে করে এই মন্তব্যের দিনক্ষণ কার্যকারণের খোঁজ। 
এবার জানা গেল ঠিক কেন এই শব্দবন্ধ ব্যবহার করেন তিনি। 
আরও পড়ুনঃ মমতা আমাদের সদস্য নন, মিম বিতর্কে মুখ খুললেন দিলীপ ঘোষ

প্রথমেই বলা যাক সেদিন কী বলেছিলেন দিলীপ ঘোষ। ভিডিওতে দেখা যায়, দিলীপ ঘোষ সংগঠনের কর্মীদের রণং দেহী মেজাজে জিজ্ঞেস করছেন, 'হারল কেন বিজেপি ওখানে? সংগঠনটা আমি করব না হিন্দুরা করবে? কিছু মরুক না এত কষ্ট পাচ্ছেন কেন? আমার কল্য়ানকে হারালে কেন? কৃষ্ণনগরের লোকের প্রতি আমার কোনও মায়া নেই। হিন্দু অনেক মরেছে আরও কিছু মরুক।
লাফাতে লাফাতে সাষ্টাঙ্গে প্রণাম, রেল কর্তার ভক্তিতে ঘাবড়ে গেলেন দিলীপই, দেখুন ভিডিও

অর্থাৎ ঘটনাস্থল কৃষ্ণনগর। কিন্তু কবে? সূত্রের খবর, নদিয়ায় দুটি কেন্দ্রে মধ্যে একটিতে জয় পেলেও অন্য কেন্দ্র অর্থাৎ কৃষ্ণনগরে মহুয়া মৈত্রের কাছে কল্যাণ চৌবে হেরেছেন ৬০ হাজারেরও বেশি ভোটে। তাতেই রুষ্ট হয়েছেন দিলীপ ঘোষ, ধমকেছেন সংগঠনের কর্মাীদের।

প্রসঙ্গত এদিন সংবাদমাধ্যমের সামনে এই ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে নেন দিলীপ ঘোষ। তাঁর দাবি, হিন্দুদের রক্ষা করেন তাঁরাই, অথচ মানুষ ভোট দেয় অন্যদের। তাঁর আরও দাবি, মানুষও তাদের ভুল বুঝতে পেরেছে।উল্লেখ্য, কয়েক দিন আগেই দলীয় কর্মীদের মৃত্যুর কথা বলতে গিয়ে কণ্ঠ রুদ্ধ হয়ে গিয়েছিল রাজ্য সভাপতির। দলীয় কর্মীর মৃত্যুতে যিনি শোকে কাতর, তিনিই কী ভাবে বলেন, আরও হিন্দু মরুক, প্রশ্ন ঘুরছে রাজনৈতিক মহলে।