অবশেষে স্বস্তির মুখ দেখল কলকাতাবাসী। কালবৈশাখী আর  বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির জেরে খানিকটা হলেও ঠান্ডা হলো কলকাতার আবহাওয়া। 

পূর্বাভাস ‌মাফিক এদিন সকাল থেকেই আকাশের মুখ ছিল ভার। ছিল আদ্রতা জনিত অস্বস্তি। বিকেলের দিকে ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বৃষ্টি নামল কলকাতা এবং সংলগ্ন অঞ্চল গুলিতে। কেন এলো এই বৃষ্টি। 

হাওয়া অফিস বলছে, শুক্রবারই ছোটনাগপুরের মালভূমির ওপরে তৈরি হয় বজ্রগর্ভ মেঘ। দক্ষিণপূর্ব দিকে  যত এগিয়েছে এই মেঘ ততই বৃষ্টি হয়েছে তপ্ত দক্ষিণবঙ্গে। পশ্চিমের জেলাগুলিতে ঝড়বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টি হয়েছে পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম, দুই মেদিনীপুর, হাওড়া ও হুগলিতে। বৃষ্টি হয়েছে বীরভূম, পশ্চিম বর্ধমান, মুর্শিদাবাদ ও নদিয়ার একাংশে। শুক্রবার রাতেই কোথাও কোথাওআংশিক মেঘলা আকাশ ছিল, সেই সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া দিয়ে বৃষ্টি এসেছে। 

আবহাওয়া দফতরের বয়ান অনুযায়ী, উত্তরবঙ্গে আগামীকালও দফায় দফায় বৃষ্টি হবে। কমবে তাপমাত্রা। তবে এর ফলে তাপমাত্রার খুব একটা পার্থক্য হবে না দক্ষিণবঙ্গে। আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি থাকবে।