দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির ঘাটতি কিছুটা মেটার আশায় বঙ্গোপসাগরের উপরে নিম্নচাপটির দিকেই তাকিয়ে ছিলেন আলিপুর আবহাওয়া দফতরের কর্তারা। এ দিন হাওয়া অফিসের থেকে জানানো হল, দক্ষিণবঙ্গের জন্য কিছুটা হলেও সুখবর রয়েছে এই নিম্নচাপের সৌজন্যে। দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায় আগামী আটচল্লিশ ঘণ্টায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের অধিকর্তা গণেশ চন্দ্র দাস এ দিন জানিয়েছেন, বঙ্গোপসাগরের উপরে নিম্নচাপটি শক্তি সঞ্চয় করে দিঘা থেকে ১৩০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে। কলকাতা থেকে তার দূরত্ব ২৩৫ কিলোমিটার। ধীরে ধীরে সেটি উত্তর পশ্চিম দিকে ওড়িশা এবং পশ্চিমবঙ্গ উপকূলের দিকে এগোচ্ছে। বুধবার এই নিম্নচাপটি আরও শক্তি সঞ্চয় করবে বলেই মত আবহবিদদের। 

এর ফলে আগামী আটচল্লিশ ঘণ্টায় গোটা দক্ষিণবঙ্গ জুড়েই বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ভারী বৃষ্টি হবে দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার মতো উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে। এর পাশাপাশি দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য জেলাগুলিতেও হাল্কা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। কলকাতাতেও ভাল পরিমাণে বৃষ্টি হবে বলেই আবহবিদদের আশা। উপকূলবর্তী এলাকা নয়, এমন কয়েকটি জেলাতেও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। 

এর পাশাপাশি বুধবার সারাদিনই উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৫৫ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইবার সম্ভাবনা রয়েছে। একটু ভিতরের জেলাগুলিতে হাওয়ার গতিবেগ থাকতে পারে ঘণ্টায় ৩০ কিলোমিটারের আশেপাশে। আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।