ফের ঘুরে দাঁড়াল ঠান্ডা। উত্তুরে হাওয়ার বাধা কাটিয়ে আগামী ৪৮ ঘণ্টায় সারা রাজ্যে জাঁকিয়ে শীত পড়বে বলে পূর্বাভাস দিচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। ফলে এবারের প্রজাতন্ত্র দিবস জমিয়ে ঠান্ডা থাকবে কলকাতায়।

শনিবার শহর কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এক ধাক্কায় ৩ ডিগ্রি নেমেছে তাপমাত্রার পারদ। এদিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি বেশি।  এরমধ্যে রবিবার দার্জিলিং জেলায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির পর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস। 

এদিকে আগামী সপ্তাহের শুরুতে জম্মু-কাশ্মীরে একটি পশ্চিমি ঝঞ্ঝা তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আবার ওই সময়ে বঙ্গোপসাগরে একটি বিপরীত ঘূর্ণাবর্তও তৈরি হতে পারে। এর ফলে দক্ষিণবঙ্গে প্রচুর পরিমাণে জলীয় বাষ্প ঢুকবে। ঠান্ডা ও সমুদ্রের জলীয় বাষ্পের সংস্পর্শে তৈরি হবে মেঘ। ফলে ওই সময়ে বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। 

মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার রাজ্যে বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস। বুধ ও বৃহস্পতি সরস্বতী পুজোর দিনে বৃষ্টির সম্ভাবনা কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে।

গত শুক্রবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৪.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি নিচে।  বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ থেকে ৩৫ থেকে ৯৩ শতাংশ। যদিও গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়নি কলকাতায়। 

এদিকে আগামী সোমবার পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ঢুকছে জম্মু-কাশ্মীরে। মঙ্গলবার থেকে জম্মু কাশ্মীর, হিমাচল প্রদেশ ও উত্তরাখণ্ডে ব্যাপক তুষারপাত হবে। দিল্লি, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, রাজস্থান, চন্ডিগড়, উত্তরপ্রদেশ ,মধ্যপ্রদেশ ও  বিহারে ২৮ ও ২৯ জানুয়ারি বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।