ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের শক্তি বাড়ছে ক্রমশ। আশঙ্কা করা হচ্ছে, শনিবার মধ্যরাতে  সাগরদ্বীপে আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল।  তাই আগামিকাল শনিবার, কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের সাত জেলায় সব স্কুলে ছুটি ঘোষণা করল রাজ্য সরকার।  কলকাতা, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম এবং হাওড়া জেলার সমস্ত স্কুল বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিকাশভবন থেকে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, প্রয়োজনে  উপকূলবর্তী অঞ্চলগুলিতে কলেজ বন্ধ রাখার জন্য়।

আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে যে, ঘণ্টায় ১১০-১২০ কিমি বেগে এই ঝড় বয়ে যাবে । ঝড়ের গতিবেগ  ঘণ্টায় ১৩৫ কিমি হওয়ারও প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। ইতিমধ্য়েই পশ্চিমবঙ্গে কমলা সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। উপগ্রহ চিত্র মারফত জানা গিয়েছে যে, শনিবার সকালে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের অভিমুখ বদলাবে। এর পর তা মধ্যরাতে উপকূলে আছড়ে পড়বে বলে আশঙ্কা করা হয়েছে। ইতোমধ্যেই মৎস্যজীবীদেরও সমুদ্রে যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।


এই পরিস্থিতিতে আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে  রাজ্য প্রশাসন। নবান্ন থেকে সব জেলাগুলিকেই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে। যে কোনও পরিস্থিতির জন্য়ই  রাজ্যে সরকারের তরফে সমস্ত ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হবে। প্রয়োজনে সাধারণ মানুষকে যাতে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে  নেওয়া যায়, সে জন্যই  ৭ জেলায় সমস্ত স্কুল ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। যাতে প্রয়োজন পড়লে এই সমস্ত স্কুলে বিশেষ ত্রাণ শিবির খোলা হতে পারে।