দক্ষিণভারত রয়েছে পছন্দের ভ্রমণের তালিকাতে। তবে বেছে নিতে পারেন সৈকতের শহর মহাবলিপুরমকে। এখানে একই সঙ্গে মিলতে সৈকতের আনন্দ, পাশাপাশি মিলবে ঐতিহাসিক স্থাপত্যের দেখা। তাই জেনে নিন কী কী দেখার থাকছে এই এলাকাতে। তামিলনাড়ুর  মহাবলিপুরম শহরটিকে ১৯৮৪ সালে ইউনেষ্কো ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইটের আওতায় ফেলে। এখানে বহু দিনের প্রচুর্যের দেখা মেলে। যা দেখে এক কথায় মুগ্ধ হয়ে যেতে হয়। 

এখানেই দেখা যায় পৃথিবীর দীর্ঘতম গুহামন্দির। এরই ভেতরের মূর্তিগুলো পাথর কেটে নির্মাণ করা হয়েছে। এখানে দেখার মধ্যে যে জায়গাগুলি রয়েছে তা হল রথ মন্দির। পাথর কেটে মন্দিটিকে রথের আকারে তৈরি করা হয়। এখানে রয়েছে পাঁচটি রথ পাঁচ পান্ডবের নামে, আরও দুটি রথ রয়েছে দ্রৌপদী এবং গণেশের নামে। 

এছাড়াও এখানে রয়েছে আরও গুহামন্দির। যাঁর ভেতরে রয়েছে মোট ১১টি মন্দির। বহুযুগ আগে নির্মাণ করা হয়েছে এই মন্দির। এছাড়াও রয়েছে পাথরের গায়ে খোদাই করা বিভিন্ন মূর্তি। গুহার মধ্যে স্থাপত্যে তালিকায় রয়েছেন বিভিন্ন হিন্দু দেবদেবীর মূর্তি। রয়েছে পাথরে ব্যাস-রিলিফ। এছাড়াও রয়েছে আরও অনেক  দ্রষ্টব্য স্থান। এই অঞ্চলে পৌঁছতে বিমানে কিংবা ট্রেনে পৌঁছে যান তামিলনাড়ু। সেখান থেকে গাড়িতে কিংবা বাসে ৫৭ কিলোমিটার।