এ যুগে সবার জীবনই খুব দ্রুত। তাই প্রত্যেক বেলায় রান্না করে খাওয়া মোটেই সহজ কথা নয়। তবে সমাধান তো রয়েছে। আজকাল অধিকাংশ পরিবারেই তাড়াহুড়োর চোটে একবারে রান্না করে তা ফ্রিজে রেখে দেওয়া হয়। পরে খাবার সময়ে ফ্রিজ থেকে বের করে তা মাইক্রোওয়েভে গরম করে খাওয়া হয়। কয়েক মিনিটেই খাবার গরম হয়ে যায়। 

কিন্তু জানেন কি, কিছু খাবার রয়েছে যেগুলি গরম করে খাওয়া মোটেও স্বাস্থ্যকর নয়। এই খাবারগুলি দ্বিতীয় বার গরম করে খেলে কোনও উপকার পাওয়া যায় না। বরং আরও ক্ষতি হয়। দেখে নেওয়া যাক কোন খাবারগুলি দ্বিতীয়বার গরম করে খাওয়া ঠিক নয়- 

১) ডিমের ঝোল, ডিম সেদ্ধ বা ওমলেট গরম করে খাবেন না। কারণ ডিম দ্বিতীয় বার গরম করলে তার প্রোটিন নষ্ট হয়ে যায় এবং ডিমের মধ্যেই নানা ক্ষতিকারক ব্য়াকটেরিয়া জন্মায়। 

২) যে কোনও ধরনেক শাক সবজিও দ্বিতীয় বার গরম করা উচিত নয়।  শাকে নাইট্রেট থাকে। ঠান্ডা হয়ে যাওয়া রান্না করা শাকের তরকারি গরম করা হলে ওই নাইট্রেট থেকে নাইট্রোস্যামাইন নামের এক ধরনের রাসায়নিক পদার্থ তৈরি হয়। এটি খুবই ক্ষতিকারক। 

৩) ভাত দ্বিতীয় বার গরম করবেন না। ওভেন থেকে নামানোর পরে ভাত যদি ঘরোয়া তাপমাত্রাতেই রেখে দেওয়া হয় তাহলে ভাত যত ঠান্ডা হতে থাকে তত নানা ব্যাকটেরিয়া জন্ম নিতে থাকে। সেই ভাত গরম করলে ব্যাকটেরিয়াগুলি আরও শক্তি বাড়ায়। 

৪) চিকেন বা মুরগির মাংসেও প্রোটিনের মাত্রা যথেষ্ট থাকে। তাই দ্বিতীয় বার গরম করলে প্রোটিনের অণুগুলি ভেঙে যায়।  তাছাড়া অনেক সময় রান্নার পরেও এক ধরনের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া চিকেনের অংশবিশেষে রয়ে যায়। রান্না করা চিকেন যদি মাইক্রোওয়েভে গরম করা হয় তাহলে এই ব্যাকটেরিয়া পুরো মাংসে ছড়িয়ে পড়ে।