ব্যস্ত সময়ে খাবার ফ্রিজে রেখেই খান সকলে। কিন্তু জানেন কী, আপনি যদি মনে করেন যে, খাবার অনির্দিষ্টকালের জন্য ফ্রিজে রেখে দিয়ে খেলে কোনও রকম সমস্যা হবে না তাহলে আপনি ভুল। তাই যেকোনও খাবার ফ্রিজে রেখে খাওয়ার একটা নির্দিষ্ট সময়সীমা থাকে। তার বেশি সময় পেরিয়ে গেলেই খাবারের খাদ্যগুণ তো নষ্ট হয়ই সেইসঙ্গে সেই খাবারে শরীরে রোগ-ব্যধি বাসা বাধতে পারে। তাই জেনে নিন কোন খাবার কতদিন পর্যন্ত ফ্রিজে রাখা যেতে পারে। 

১) মাংস রান্নার প্রয়োজনীয় উপকরণ আদা, পেঁয়াজ বা রসুন বেটে ফ্রিজে রেখে দেন অনেকেই। কিন্তু জানেন কী পেঁয়াজ বেটে তা কখনওই ফ্রিজে সংরক্ষণ করা  উচিত নয়। কারণ, পেঁয়াজ দ্রুত পচনশীল। আর সেই কারণেই তা খাবারে বিষক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারে। তবে আদা ও রসুনবাটা এক সপ্তাহ ফ্রিজে রাখা যেতে পারে।

২)  দুধ ফুটিয়ে ফ্রিজে রেখে দেন অনেকেই। কিন্তু ফোটানো দুধ ৪৮ ঘণ্টার বেশি ফ্রিজে না রাখাই ভালো। 

৩)  অনেকেই  ডিম কিনে ফ্রিজে স্টোর করে রেখে দেন অনেকদিন ধরে। কিন্তু এটা কখনওই করা উচিত নয়। ডিম সাধারণত তিন দিন পর্যন্ত ফ্রিজে রেখে খাওয়া যায়।

৪) ফলের রস করে তা কখনওই ফ্রিজে রেখে দেওয়া উচিত নয়। এতে ফলের পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়। 

৫)  রান্না করা মাংস ফ্রিজে ৪৮ ঘণ্টার বেশি না রাখাই ভালো। কারণ, ফ্রিজে রাখা মাংস বারবার গরম করে রাখার ফলে তার পুষ্টিগুণ হারায়। তবে কাঁচা মাংস ডিপ ফ্রিজে রাখলেও তা এক সপ্তাহের বেশি রাখা উচিত নয়।