বর্তমানে আর পাঁচটা সাধারণ সমস্যার মত ফ্যাটি লিভার একটি। তবে এই শারীরিক সমস্যাকে সাধারণ ভাবাটাই ভুল। এই সমস্যা মোটেও সাধারণ সমস্যা নয়। ফ্যাটি লিভারের মত সমস্যায় সতর্ক না হলে ভবিষ্যতে দেখা দিতে পারে লিভার সিরোসিসের মত মারাত্মক সমস্যাও। অস্বাস্থ্যকর ডায়েট, অনিয়মিত লাইফস্টাইলের কারণে ফ্যাটি লিভারের সমস্যা দেখা দেয়। তাই লিভারের প্রাথমিক সমস্যা দেখা দিলে উপযুক্ত চিকিৎসা করানো প্রয়োজন। তার আগেও জেনে নেওয়া প্রয়োজন আপনি ফ্যাটি লিভারের সমস্যায় আক্রান্ত কী না।
প্রথম দিকে ফ্যাটি লিভারের সমস্যা থাকলে তা প্রকাশ পায় না। যখন এই সমস্যাটি ক্রমশ জটিল পর্যায়ে এই সমস্যা ধরা পড়ে। এই সময় লিভার অনজাইমের সমস্যা বৃদ্ধি পেতে থাকে। এমনকী এই এই সমস্যা মাত্রাতিরিক্ত বৃদ্ধি পেলে জন্ডিস অবধি হতে পারে। তাই জেনে নেওয়া যাক এই রোগের প্রাথমিক লক্ষণগুলি-

আরও পড়ুন- পুজোর আগেই হয়ে উঠুন আকর্ষনীয়, এখন থেকেই মেনে চলুন এগুলি
অতিরিক্ত ক্লান্তিবোধ, অল্প পরিশ্রমেই হাঁপিয়ে ওঠা, সারাদিন ক্লান্ত লাগার সমস্যা থাকে তাহলে তা ফ্যাটি লিভারের সমস্যার প্রথমিক লক্ষণ হতে পারে।
ক্রমাগত বাড়তে থাকা পেটের মেদ বা ভুঁড়ির সমস্যা বাড়তে থাকে তবে লিভারের পরীক্ষা করিয়ে চিকিত্সকের পরামর্শ নিন।
জন্ডিসের মতো লক্ষণ যেমন চোখের সাদা অংশ হলুদ হয়ে এলে দ্রুত লিভার পরীক্ষা করান।
প্রস্রাবের রং গাঢ় হলুদ হলে সেটি ফ্যাটি লিভারের প্রথমিক উপসর্গ হতে পারে
ত্বক অস্বাভাবিকভাবে শুষ্ক হয়ে এলে, অথবা ত্বকে ছোপ দেখা দিলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে দ্রুত লিভার পরীক্ষা করান
মাঝে মধ্যেই অকারণে পেটে ব্যাথা হলে তা এই সমস্যার প্রাথমিক উপসর্গ  বলে মনে করা হয়
ফ্যাটি লিভারের এই সমস্যাকে বলা হয় সাইলেন্ট কিলার।
লিভারের এই সমস্যা দেখা দিলে চেহারায় বয়সের ছাপ ও পেশী ক্ষয়ের মত সমস্যাও দেখা দিতে পারে।