প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠেই কি আপনার এই সমস্যায় সম্মুখীন হতে হয়! ঘুম ভাঙ্গলেই শুরু হয়ে যায় অনর্গল হাঁচি। তবে আপনি মারাত্মক সমস্যায় ভুগছেন। সময় নষ্ট না করে আজ থেকেই মেনে চলুন প্রতিকার। ঘরোয়া কিছু পদ্ধতিতেই এই সমস্যার সমাধান সম্ভব। তবে, যদি বিশেষ ঘরোয়া প্রতিকারেও এর সমাধান না হয় তবে অবশ্যই পরামর্শ নিন চিকিৎসকের। শীতের এই মরসুমে অনেকেই অ্যালার্জির সমস্যায় ভোগেন। বিশেষত, যাঁদের ঠান্ডায় অ্যালার্জির সমস্যা রয়েছে। সকালে ঘুম থেকে উঠতে না উঠতেই শুরু হয় হাঁচি-কাশির সমস্যা।

আরও পড়ুন- গ্ল্যামারস লুক পান হালকা মেকআপেই, মাথায় রাখুন সহজ এই নিয়মগুলি

বিশেষজ্ঞদের মতে অ্যালার্জির কারণেই  এই সমস্যার সম্মুখিন হতে হয় বেশিরভাগ ক্ষেত্রে। এর ফলে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা অনেকেরই  বিঘ্নিত হয়। আবার অ্যালার্জির সমস্যাকে সাধারন সমস্যা ভেবে বেশির ভাগ মানুষই মারাত্মক কিছু ভুল করে ফেলেন। অনেক ক্ষেত্রে তা বিপদ আরও বাড়িয়ে দিতে পারে। যাঁদের প্রায় সম সময়েই এই রকম সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় তাঁদের জন্য রইল কয়েকটি ঘরোয়া প্রতিকার। এই নিয়মগুলি মেনে চললে কিছু ক্ষেত্রে অনায়াসেই কাটিয়ে উঠতে পারবেন সমস্যা।

আরও পড়ুন- মাত্র ৪ টি সহজ কাজ, কমাতে পারে আপনার বাড়তি ওজন

যাঁরা সকালে হাঁটতে যান বা শরীরচর্চা করেন, তারা শুরুতে মাথা, নাক-মুখ ঢেকে তবে বাইরে যান। এতে বাইরের তাপমাত্রার সঙ্গে স্বাভাবিক ভাবে মানিয়ে নিতে সুবিধে হবে। না হলে ধূলো বা হঠাৎ করেই ঠান্ডা লেগে সমস্যা বাড়তে পারে। ঘুম থেকে উঠে বিছানা ছেড়ে মাটিতে পা রাখার সময় অবশ্যই খেয়াল রাখুন এই বিষয়টি। ঠান্ডা মেঝেতে খালি পায়ে হাঁটলে চট করে ঠান্ডা লেগে হাঁচি, কাশি শুরু হয়ে যায়। তাই ঘুম থেকে উঠেই খালি পায়ে হাঁটার অভ্যাস বদলে ফেলুন। খাটের সামনে পেতে রাখুন কার্পেট বা বাড় মাপের ম্যাট। যাতে ঘুম থেকে উঠে প্রথমেই মেঝেতে পা রাখতে না হয়। ঘুম থেকে ওঠার পর বাইরের তাপমাত্রার সঙ্গে মানিয়ে নিতে শরীরের বেশ কিছুটা সময় লাগে। তাই সকালে বিছানা ছেড়ে ওঠার পর অবশ্যই গরম জামা-কাপড় পড়ে নিন। সবথেকে বড় সমস্যা হল সর্দি কাশির মত সমস্যা দেখা দিলে নিজে থেকেই ওষুধ খাওয়ার আগে অবশ্যই পরামর্শ নিন চিকিৎসকের।