কথায়ই আছে দাঁত থাকতে দাঁতের মর্যাদা বোঝে না। এই প্রবাদ সত্যি বলেই যখন দাঁতের ব্যথা জাঁকিয়ে বসে, তখন আত্মারাম খাঁচাছাড়া হয়ে যাওয়ার জোগাড় হয়। সাধারাণত ঠিক মতো দাঁতের যত্ন না নেওয়া এবং ক্যাভিটি, মাড়িতে ইনফেকশন হলেই দাঁতের যন্ত্রণায় কষ্ট পেতে হয়। তখন পেন কিলারের মতো ওষুধ খাওয়া ছাড়া আর কোনও উপায় থাকে না। কিন্তু এই ওষুধের বেশ কিছু সাইড এফেক্টস থাকে। তবে জানেন কি পাঁচটি ঘরোয়ো টোটকাতেই  আপনি দাঁতের ব্যথা থেকে রেহাই পেতে পারেন। 

জেনে নেওয়া যাক কোন পাঁচটি টোটকায় সহজেই দাঁতে ব্য়থা সারবে- 

১) লবঙ্গ তেল- যুগ যুগ ধরে ভারত ও চিনে দাঁতের ব্যথার জন্য লবঙ্গ তেল ব্যবহার করা হয়ে আসছে । এর মধ্যে ইউগোনেল নামের একটি উপাদান থাকে যা অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল হিসেবে কাজ করে। লবঙ্গ খারাপ ব্যাকটেরিয়াকে নষ্ট করে ভাল ব্যাকটেরিয়াদের অক্ষত রাখে। 

২) নুন-জল- দাঁতে ব্যথা হলে সবচেয়ে উপকারী টোটকা হল নুন জল দিয়ে কুলকুচি করা। মাড়ি ফুলে গেলে এই টোটকা খুব কার্যকরী। এটিও অ্যান্টি ব্যাকটেকিয়াল হিসেবে কাজ করি। 

৩) বরফের সেঁক- বরফের সেঁক দিলে নার্ভগুলি  অবশ হয়ে পড়ে। তাই দাঁতে অসহ্য যন্ত্রণা হলে ঠান্ডা শেঁক দিতেই পারেন। 

৪) রসুন- রসুনে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান রয়েছে। তাই দাঁতে ব্যথা হলে কাঁচা রসুন চিবিয়ে খেতে পারেন। 

৫) গোলমরিচের পেস্ট- মুখের মধ্য়ে যা ব্যাকটেরিয়া হয় বা জীবাণু তৈরি হয় তা দূর করতে গোল মরিচের জুড়ি মেলা ভার। তাই গোল মরিচ বাটা দাঁতে লাগাতে পারেন। মুখে গন্ধ হলেও এই টোটকা কাজে দেবে।