বয়স বৃদ্ধি মানেই মৃত্যুর দিকে এগিয়ে চলা। কিন্তু মৃত্যু বলে কয়ে আসে না। এমনকী, কিছু শারীরিক অসুস্থতা এখন আর বয়স মেনে জাঁকিয়ে বসে না। ব্যস্ততার যুগে মানুষ এতই  অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়ে, তাই কম বয়স থেকেই বিভিন্ন রোগ শরীরে বাসা বাঁধতে থাকে। এর মধ্য়ে অন্যতম হল স্ট্রোক। এক হেলথ ওয়েবসাইটের প্রতিবেদতন থেকে দেখা যাচ্ছে ভারতে স্ট্রোকে আক্রান্ত রোগীদের ২০ শতাংশের বয়স ৪০ বছরের নীচে। 

প্রতিবেদনটি থেকে জানা যাচ্ছে, মস্তিষ্ক-সহ শরীরের প্রতিটি কোষেও রক্ত সঞ্চালন প্রয়োজন। এই রক্ত যে ধমনীর মাধ্য়মে চলাচল করে সেটি হঠাৎ শুকিয়ে গেলে, রক্ত চলাচলে বাধা পড়ে। ফলে মস্তিষ্কে পর্যাপ্ত পরিমাণে অক্সিজেন পৌঁছয় না এবং মস্তিষ্কের কোষ নিস্তেজ হয়ে যায়। একেই স্ট্রোক বলে। 

আরও পড়ুনঃ মাথা যন্ত্রণা থেকে কথায় জড়তা, ৮ লক্ষণ জেনে সাবধানে থাকুন

স্ট্রোক ঠিক কী কী কারণে হয়- 

১) যাঁরা টানা চেয়ারে বসে কাজ করেন এবং হাঁটা চলা নেই বললেই চলে, তাঁদের অল্প বয়সেই স্ট্রোক হওয়ার সম্ভাবনা কয়েক গুণ বেড়ে যায়। 
২) শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেশি থাকলেও স্ট্রোকের ঝুঁকি বেড়ে যায়। ডায়াবেটিসের রোগীদেরও স্ট্রোকের ঝুঁকি থাকে। 
৩) এছাড়া অবসাদ ও অতিরিক্ত মানসিক চাপ থেকেও স্ট্রোক হতে পারে। 
৪) নিয়মিত ধূমপান ও মদ্যপান স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয় কয়েক গুণ।  

কী কী করবেন স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে- 
১) সারাদিন এক জায়গায় বসে থাকবেন না। স্ট্রেস মুক্ত থাকার চেষ্টা করুন। 
২) ধূমপান ও মদ্যপানের অভ্যেস থাকলে তা ত্যাগ করুন। 
৩) ডায়েটে ফল ও সবজি রাখুন। ভাজা ফাস্ট ফুড বাদ দিন। 
৪) পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমোন এবং অতিরিক্ত সাধ্য়ের বাইরে পরিশ্রম করবেন না। 
৫) ওজন ও প্রেশার দুটোই নিয়ন্ত্রণে রাখুন।