বাজাজ এসময় যাবৎ ডমিনার ব্র্যান্ডের একটাই মডেল রিটেল করেছিল। এইবার এই দ্বি-চক্র যানের নির্মাতা নিয়ে আসছে নতুন মডেল ডমিনার ২৫০। ইতিমধ্যেই গত সপ্তাহ থেকে বাজাজ ডমিনার ২৫০-এর বুকিং ভারতে শুরু হয়ে গেছে। এছাড়া বাজাজ যে টিজার ভিডিওটা লঞ্চ করেছে, তা দেখে এটুকু নিশ্চিতভাবে বোঝা যাচ্ছে যে বাজাজ ২৫০ বাইকটি আসতে চলেছে খুব শীঘ্রই, যদিও কোনও তারিখের উল্লেখ করা নেই যে কবে থেকে বাজারে এই বাইক্টি আসছে বা আনুষ্ঠানিক লঞ্চ কবে করা হবে। এমনকি 'শীঘ্রই আসছে' এমন কথাও লেখা নেই। বাইকটির কোনও ছবিও শেয়ার করা হয়নি এই টিজারে।  নতুন বাজাজ ডমিনার ২৫০ এর পরীক্ষা মূলক টেস্ট ড্রাইভ চলছে সারা দেশ জুড়েই, তাই বাজাজের এই নতুন বাইকটির চেহারার ঝলক দেখতে পাওয়া গেছে। এইসব ঝলক থেকে যতটুকু জানতে পারা গেছে তাতে আন্দাজ করা যাচ্ছে যে নতুন বাইকটিতে কি কি ফিচার থাকবে- ডমিনার ৪০০-এর মতোই চেহারা, কেবল দুটি বাইকের পার্থক্য করা যাবে ভি-শেপড হেডল্যাম্প সঙ্গে ব্ল্যাক কৌল, ফুয়েল ট্যাঙ্ক, স্প্লিট সিট সেটআপ প্রভৃতির মাধ্যমে। নতুন বাজাজ ডমিনার ২৫০ বাইকে থাকবে নতুন অ্যালয় হুইল এবং এলইডি লাইটের বদলে একটি হ্যালোজেন হেডলাইট।  

ডমিনার ২৫০ নিয়ে আরও যা যা জানা গেছে তা হল, এই বাইকে থাকবে একই কেটিএম ২৫০ ডিউক ইঞ্জিন, বিএস ৬-নিয়মসিদ্ধ মোটর যার সঙ্গে থাকবে ৬-স্পিডের ম্যানুয়েল গিয়ারবক্স, ৩০ বিএইচপি পাওয়ার সঙ্গে ২৪ এনএম পিক টর্ক। যাইহোক আমরা এটুকু আন্দাজ করতেই পারি যে  ইঞ্জিনের পারফরম্যান্স দিক থেকে একেবারে আলাদা হবে বাজাজ ডমিনার ২৫০। 

আর কিছুদিন পর আমরা জানতে পারব বাজাজ ডমিনার ২৫০-এর প্রকৃত দাম , তবে এটুকু বলাই যায় যে এই বাইকের দাম আগের সংস্করণটির থেকে কম হবে।  বাজা্জ ডমিনার ৪০০-এর দাম ছিল ১.৯ লাখ টাকা। নতুন ডমিনার ২৫০ মডেলটির দাম হয়তো ১.৬৫ লাখ টাকার কাছাকাছি হবে।