ওজন কমানোর জন্য ডায়েটে আছেন, ওজন বেশ খানিকটা কমে গেলেও কিছুতেই পেটের ফোলা ভাব নিয়ন্ত্রণে আনতে পারছেন না। ক্রমশ পেট ফুলে উঠছে। এই সমস্যার মুখোমুখি যদি আপনি হয়ে থাকেন তবে ডায়েট ছাড়াও আপনাকে আরও একটু নজর দিকে হবে শরীরের উপর। বিশেষজ্ঞদের মতে প্রতি ১০ জনের মধ্যে ৪ জনের এই সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। পেট ফাঁপা এই সমস্যাটি খুব বড় নয়, তাই আপনাকে খুব বেশি চিন্তা করার দরকার নেই। তবে হ্যাঁ, এই সমস্যাটি অবশ্যই আপনার স্টাইল স্টেটমেন্ট ব্যাঘাত ঘটাবে। নিজের মনের মত পোশাক পরতে পারবেন না। তাই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে জেনে নিন ৫ টি অব্যর্থ টোটকা, যা কাজ করবে ম্যাজিকের মতন-

আরও পড়ুন- সর্বনাশ নাক ডাকার সমস্যায় ভুগছেন, অজান্তেই বাড়ছে হৃদরোগের ঝুঁকি 

চিউইংগাম খাওয়া বন্ধ করুন- চিউইংগাম বা অন্য কোনও ধরণের আঠালো খাদ্য পেট ভরার করার জন্যও দায়ী হতে পারে। এজন্য এগুলি খাওয়া এড়ানো উচিত। মনে রাখবেন যে চিউইংগামে চিনি, অ্যালকোহল এবং কৃত্রিম মিষ্টি যেমন সোরবিটল এবং জাইলিটল রয়েছে যা পেটের ফোলাভাব আরও বাড়াতে পারে।

প্রতিদিন ৩.৫ লিটার জল পান- কাজের চাপে বেশিরভাগ সময় সঠিক পরিমানে জল খাওয়া হয় না। এটা মোটেই করা উচিত নয়। শরীরে জলের পরিমান কমতে শুরু করলেই শরীর ডিহাইড্রেশনের শিকার হতে পারে। তাই দিনে কমপক্ষে ৩.৫ লিটার জল পান করুন। এটি আপনার শরীরকে জলশূন্য হতে বাধা দেয়। যার কারণে আপনার পেট কিছু দিন পর আগের মতো হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন- কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে ফ্যাট বার্ন, ৬ প্রকার জটিল সমস্যা থেকে মুক্তি দেবে এই অব্যর্থ টোটকা 

কলা খান- কলাতে প্রচুর পরিমান পটাসিয়াম রয়েছে। যা ফুলে যাওয়া পেটের সমস্যা কমাতে সাহায্য করবে। পটাশিয়াম খাবারে উপস্থিত সোডিয়ামের প্রভাবগুলিকে মেরে ফেলে। তাই কলা বা এই জাতীয় জিনিসগুলি খাওয়া উচিৎ যাতে পটাসিয়াম প্রচুর পরিমাণে পাওয়া যায়।

আদা ব্যবহার করুন-  আদা স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারী। অনেক সময় প্রদাহ বা অন্য কোনও কারণে পেট ফুলে যায়, যা আদা দ্বারা সমাধান করা যেতে পারে। এজন্য আদা চা পান করুন। আদা আপনার ক্লান্তি এবং আপনার পেট ফাঁপা সমস্যাটি দূর করতে পারে। পেট ফাঁপা হওয়ার অন্য কারণ হল প্রদাহ, মশলাদার খাবার, দুগ্ধ এবং রাসায়নিক খাবার খাওয়া ইত্যাদি। এর জন্য় আদা কার্যকর হিসাবে প্রমাণিত।

 

এই সবজিগুলি এড়িয়ে চলুন- পেট ফোলা ভাব এড়াতে কিছু সময়ের জন্য, পেঁয়াজ, ব্রকলি, বাঁধাকপির মতো সবজিগুলি বন্ধ করুন। কারণ এই সবজিগুলি আপনার অবস্থার অবনতি ঘটাতে পারে। কারণ এই সবজিতে এফওডিএমএপস (ফেরমেন্টেবল অলিগোস্যাকচারাইডস, ডিসাকচারাইডস, মনোস্যাকচারাইডস এবং পলিওলস) বেশি পরিমাণে পাওয়া যায়। এই সবজিগুলি পুষ্টিতে পরিপূর্ণ এবং আপনার স্বাস্থ্যের জন্যও জরুরি। তবে সেগুলির অতিরিক্ত পরিমানে খাওয়ার ফলে আপনার পেট আরও ফুলে উঠতে পারে। 

রক সল্ট বা সন্ধব লবন- স্নানের জলে রক সল্ট বা সন্ধব লবন মিশিয়ে নিন। শুনতে অবাক লাগলেও এটি দুর্দান্ত কাজ দেয়। এই লবনে রয়েছে ভরপুর ম্যাগনেসিয়াম। তাই পেট ফুলে থাকার কিছুক্ষণের মধ্যে যদি সাধারণ অবস্থায় ফিরে না আসে তবে স্নানের জলে ২ কাপ রক সল্ট বা সন্ধব লবন মিশিয়ে নিন। এটি আপনার শরীরের অতিরিক্ত জল শোষণ করে নেয়। এটি একটি ইলেক্ট্রোলাইট। পাশাপাশি ডিহাইড্রেশন এর সময়েও এই পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারেন। তবে সে ক্ষেত্রে এক বালতি জলে কেবল এক কাপ লবন ব্যবহার করুন।