বাড়িতে, অফিসে, গাড়িতে, যেখানে যখন মর্জি ফোন বা ল্যাপটপ থেকে অডার করছেন বিভিন্ন দ্রব্য। সহজেই তা বাড়ির দরজায় চলেও আসছে। ফলে চিন্তা কীসের। ভির ঠেলে বা বাসে ট্রামে সমস্যার মুখে না পড়েই শান্তিতে সময় নিয়েই কেনাকাটা করার আনন্দই আলাদা। যারা এমনটা মনে করেন তাদের মাথায় রাখা প্রয়োজন, ঠকে যাচ্ছেন না তো! এক অডার দিচ্ছেন পাচ্ছেন অন্যরকমের দ্রব্য!

 আরও পড়ুনঃ হাইপার টেনশনে ভুগছেন! নিয়মিত ৫ পানীয়ই সমস্যার সমাধান

সমস্যা এড়াতে নজরে রাখুন কয়েকটি বিষয়ঃ
১. নকল জিনিসঃ কথায় বলে নকল হইতে সাবধান। তাই নকল কিনে ঠকবেন না। তাই কোনও জিনিস কেনার আগে অনান্য জায়গায় বা ওয়েবসাইটে তার দাম ও বিশেষ গুণাগুণগুলো দেখে নিন। যদি দেখেন আপনার সাইটে দাম অতিমাত্রায় কম তবে তা নকল হতে পারে।
২. ওয়ারেন্টিঃ অনেক সময় দেখা যায় যদি কোনও ইলেকট্রনিক জিনিস ওনলাইনে কেনা হচ্ছে তবে তার ওয়ারেন্টি ভালো করে বুঝে নিন। প্রয়োজনে সেই দ্রব্যের কাস্টমার কেয়ার-এ কথাও বলে নিতে পারেন।
৩. লুকনো দামঃ একটি দ্রব্যের ক্ষেত্রে লুকনো দাম কতটা তাও জানা প্রয়োজন। বেশ কিছু দামের পাশে একটি করে স্টার চিহ্ন দেওয়া থাকে। তা থেকে বোঝা যায় যে সেটা দ্রব্যের দাম হলেও কিছু শর্ত লুকিয়ে আছে। সেটা সম্পর্কে স্পষ্ট ধারনা থাকা দরকার।
৪. মিথ্যে প্রতিশ্রুতিঃ অনেকসময় দ্রব্যের দাম যা দেখায় তা আসলের থেকে অনেকটা বেশি হয়। তার ওপর ছাড় দেওয়ায় ক্রেতারা মনে করেন যে তারা উপকৃত হচ্ছেন কিন্তু আদপে তা হয় না।
৫. সুরক্ষাঃ যে সব জায়গায় নিজেরে ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ডের বিস্তারিত তথ্য দিচ্ছেন, সেই সাইট সম্পর্কে আগে সচেতন হন। আপনার তথ্য যেন কোনও মতেই বেহাত না হয়ে যায়।