রাতারাতি শরীর গঠনের দিকে নজর দিয়ে ফেলেন অনেকেই। সামনে পুজো কিংবা কোনও বড় অনুষ্ঠান। তৈরি করে ফেলতে হবে শরীর। তাই ঝুঁকি মাথায় নিয়েই ব্যায়াম করতে শুরু করে দেন অনেকেই। সেখানে থাকে না কোনও নির্দিষ্ট সময়সীমা, থাকে না কোনও নিয়ম নীতি। এতে শরীরের নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে।

আরও পড়ুনঃ অফিসের কাজের চাপে ঘুম নেই কর্মরতা মহিলাদের চোখে! দাবি করছে নতুন সমীক্ষা

সেই দিকে নজর দিয়েই ব্যায়াম করার আগে কয়েকটি পদ্ধতি মেনে চলা প্রয়োজন 
১, দেহের ওপর অতিরিক্ত চাপ দিলে শরীর তা একটি সময় পর আর নিতে পারে না। তাই নিজের ক্ষমতা বুঝে বতেই ব্যায়াম করা প্রয়োজন।
২. সব ব্যায়াম সকলের জন্য নয়। শরীরে বিশেষ কিছু সমস্যা থাকলে কোনও কোনও ব্যায়াম তাদের পক্ষে করা ঠিক নয়। এতে শরীরের সমস্যা আরও বেড়ে যায়। তাই বিশেষ কিছু ক্ষেত্রে নিয়ম মেনেই ব্যায়াম করা দরকার।
৩. ব্যায়াম বা জিম করার আগে শরীরের ওজন নিজের উচ্চতা মেপে নিন। এতে আপনি কতটা পরিশ্রম করতে পারেন, বা শরীর কতটা ধকল নিতে পারবে তা জানা যায়। 
৪. রাতারাতি খাদ্যতালিকা বদলে ফেললে শরীরের সমস্যা আরও বেড়ে যাবে। তাই ধিরে ধিরে অভ্যাস পাল্টান। এতে শরীরের সমস্যা অনেকাংশে কমে যাবে। 
৫. শরীরকে কষ্ট দিয়ে ব্যায়াম করতে তা অপকারই বেশি করে। ফলে ঘড়ি ধরে নিজেকে ধিরে ধিরে পরিস্থিতির সঙ্গে  খাপখাইয়ে নিন। এতে শরীরের সমস্যাগুলো কমে যাবে।