পদত্যাগ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর সঙ্গে ইস্তফা দিলেন তাঁর মন্ত্রিসভার সকল সদস্যও। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দ তাঁদের ইস্তফাপত্র গ্রহণ করেছেন। তবে নতুন মন্ত্রিসভা দায়িত্ব গ্রহণের আগে পর্যন্ত তাঁদেরকে কাজ চালিয়ে যাওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি।

শুক্রবার সন্ধ্যায় রাষ্ট্রপতি ভবনে আসেন প্রধানমন্ত্রী। রামনাথ কোভিন্দের হাতে তিনি তাঁর ও তাঁর মন্ত্রীসভার সকল সদস্যের ইস্তফাপত্র তুলে দেন মোদী। লোকসভা নির্বাচন ২০১৯-এ বিপুল জয়লাভের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানান রাষ্ট্রপতি। দুই নেতার মধ্যে খানিকক্ষণ কথাও হয়।

এর আগে নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে শেষ বৈঠকে বসেন বিদায়ী মন্ত্রিসভার সদস্যরা। সেখানেই ষোড়শ লোকসভা ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। একই সঙ্গে ওই সভায় নতুন মন্ত্রীসভার শপথগ্রহণের দিনক্ষণও ঠিক করা হয় বলে জানা গিয়েছে। সরকারিভাবে কোনও ঘোষণা না করা হলেও আগামী ৩০ মে তারিখে নতুন মন্ত্রিসভা শপথ নিতে পারেন বলে অনুমান করা হচ্ছে।

শনিবার ২৫ মে তারিখে এনডিএ-এর নেতারা এক বৈঠকে বসবেন। সেখানেই আনুষ্ঠানিকভাবে নরেন্দ্র মোদীকে জোটের নেতা বলে ঘোষণা করা হবে।

এদিকে এদিন রাষ্ট্রপতির হাতে ষোড়শ মন্ত্রিসভার সদস্যদের ইস্তফাপত্র তুলে দেওয়ার পর, এবার ভারতের নির্বাচন কমিশন নতুন সরকার গঠনে জন্য আহ্বান জানাবে।