শাজাহান আলি, মেদিনীপুর-মদ্যপ অবস্থায় এলাকার জলাশয়ে স্নান করতে নেমেছিল এক ব্যক্তি। ওই অবস্থাতেই সাঁতার কেটে নদীর জলাশয় পারাপারের চেষ্টা করলে তলিয়ে যায়। ঘটনার একদিন পর ওই মদ্য়প ব্যক্তির দেহ উদ্ধার করল সিভিল ডিভেন্স।

চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে মেদিনীপুর সদর ব্লকের মুড়াকাটা গ্রামে। জানাগেছে, শঙ্কর মাঝি নামে বছর পঁয়তাল্লিশের ওই ব্যক্তি গ্রাম লাগোয়া জঙ্গলের পাশে একটি জলাশয়ে স্নান করতে নেমেছিল। গ্রামবাসীরা তাঁকে দূর থেকে লক্ষ্য করেন মদ্যপ অবস্থায় ওই গভীর জলাশয় পার করার চেষ্টা করছিলেন শঙ্কর মাঝি। সাঁতার কাটার সময় জলাশয়ের মাঝে এসে তলিয়ে যায় সে। গ্রামবাসীরা দেখতে পেয়ে তাঁকে উদ্ধারের চেষ্টা করে। দীর্ঘক্ষণ জলে তল্লাশির পর না পেয়ে এদিন সন্ধায় গুড়গুড়িপাল থানার পুলিশকে খবর দেয়। এরপর পুলিশ খবর দেয় সিভিল ডিফেন্সে।

ঘটনার পরের দিন শুক্রবার সকাল থেকে ওই জলাশয়ে শঙ্কর খোঁজে তল্লাশি শুরু করে সিভিল ডিফেন্স। সকাল সাতটা থেকে বেলা দশটা পর্যন্ত তিন ঘণ্টা তল্লাশির পর শঙ্করের দেহ উদ্ধার হয়। জলাশয়ে শঙ্করের উদ্ধার ঘিরে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। উদ্ধারকাজ দেখতে ঘটনাস্থলে ভিড় করেন আশেপাশের বহু মানুষ। মৃত শঙ্কর মাঝির ভাই শিবুর দাবি, দাদা মদ্যপ অবস্থায় জলে নামার কারনেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে। শঙ্করের মৃত্যুতে পরিবারে শোকের ছায়া।