শাজাহান আলি, পশ্চিম মেদিনীপুর-ক্রমশ তীব্র হচ্ছে হাতি-মানুষের সংঘাত। পশ্চিম মেদিনীপুরের হাতির আতঙ্কে ঘুম কেড়েছে গ্রামবাসীদের। সন্ধে নামলেই জঙ্গল থেকে বেরিয়ে গ্রামের ঘরবাড়ি বা জমির ফসলে হানা দিচ্ছে হাতির পাল। অনেক সময় গ্রাবাসীরা নিজেদের সুরক্ষায় বেআইনি পথ বেছে নিচ্ছে বলেও অভিযোগ। 

বন দফতরের সূত্রে খবর, তিন থেকে চারটি হাতির জল শালবনীর জঙ্গল বিভিন্ন জায়গায় আশ্রয় নিয়েছে। বাঁকুড়া ও ঝাড়গ্রাম থেকে কংসাবতী নদী পেরিয়ে খাবারের খোঁজে এলাকার বেশ কয়েটি জঙ্গলে ঘাঁটি গেড়েছে দলমার দল। সন্ধে নামলেই জঙ্গল থেকে বেরিয়ে গ্রামগুলিতে প্রতিনিয়ত হামলা চালাচ্ছে বলে দাবি গ্রামবাসীদের। হাতির আতঙ্ক ঠেকাতে রাত পাহারার ব্যবস্থা করেছেন গ্রামবাসীরা।

আরও পড়ুন-বিদ্যুৎহীন সরকারি হাসপাতাল, মোমবাতি জ্বালিয়ে চলছে স্বাস্থ্য পরিষেবা

রবিবার সন্ধ্যায় পনেরোটি হাতির একটি দল শালবনীর জঙ্গল থেকে বেরিয়ে ভাউদি এলাকায় ঢুকে পড়ে। হাতি তাড়াতে পিছু নেয় হুলা পার্টি। হাতির তাণ্ডবে নষ্ট জমির ফসল। বন দফতরের উদ্বেগ, এর ফলে হাতি-মানুষের সংঘাত বাড়ছে। হাতির হামলায় মানুষের মৃত্যুর ঘটনা দিনে দিনে বাড়ছে।